আজ শুক্রবার| ২৯শে মে, ২০২০ ইং| ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ শুক্রবার | ২৯শে মে, ২০২০ ইং

নড়িয়ায় সড়কে পড়ে থাকা অজ্ঞান নারীকে তুলে হাসপাতলে নিলো ওসি!

বৃহস্পতিবার, ২১ মে ২০২০ | ৪:৩৮ অপরাহ্ণ | 548 বার

নড়িয়ায় সড়কে পড়ে থাকা অজ্ঞান নারীকে তুলে হাসপাতলে নিলো ওসি!
নড়িয়া (শরীয়তপুর) প্রতি‌নি‌ধিঃ সড়কে পড়ে থাকা অজ্ঞান নারীকে তুলে হাসপাতলে নিয়ে চিকিৎসা করালেন নড়িয়ার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান। মানুষ মানু‌ষের জন‌্য, জীবন জীব‌নের জন‌্য কথাটা মিথ‌্যা নয় সত‌্য । তার প্রমান দি‌লেন ও‌সি। শরীয়তপু‌রের ন‌ড়িয়া উপ‌জেলার এক‌টি সড়‌কে প্রায় দুই ঘন্টা অজ্ঞান অবস্থায় প‌রে ছিল এক নারী‌। ক‌রোনা স‌ন্দেহে যখন কেউ তা‌কে উদ্ধার কর‌তে কা‌ছে আস‌ছিল না, তখন নড়িয়া থানা পু‌লি‌শের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও‌সি) তার সঙ্গীয় ফোর্স নি‌য়ে এ‌সে ওই নারী‌কে উদ্ধার ক‌রে ন‌ড়িয়া উপ‌জেলা স্বাস্থ‌্য কম‌প্লে‌ক্সে ভ‌র্তি ক‌রেন।
বুধবার (২০ মে) বি‌কেল ৩টার দি‌কে উপ‌জেলার ভূমখাড়া ইউ‌নিয়‌নের নয়াক‌ান্দি (ন‌ড়িয়া-ঘ‌ড়িসার) সড়ক থে‌কে ওই নারী‌কে উদ্ধার করা হয়। সংবাদ লেখা পর্যন্ত হাসপাতা‌লে অজ্ঞান অবস্থায় চি‌কিৎসা চল‌ছে তার।

সড়কের পাশে অজ্ঞান হয়ে পড়ে আছে এক নারী এমন খবর পেয়ে ছুটে যান নড়িয়া থানার ওসি হাফিজুর রহমান।

ন‌ড়িয়া থানা পু‌লিশ ও স্থানীয় প্রবাসী কবির মৃধা জানায়, বুধবার দুপুর ১টার দি‌কে ন‌ড়িয়া উপ‌জেলার নয়াক‌ান্দি (ন‌ড়িয়া-ঘ‌ড়িসার) সড়কের পা‌শে  এক নারী‌কে অজ্ঞান অবস্থায় প‌রে থাক‌তে দে‌খে স্থানীয়রা। কিন্তু ক‌রোনাভাইরা‌সের রোগী ভে‌বে কেউ তার কা‌ছে আ‌সেন‌নি। তা‌কে উদ্ধারও ক‌রেননি। দুই ঘন্টা পর বিষয়‌টি জান‌তে পে‌রে নড়িয়া থানা পু‌লি‌শের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও‌সি) ‌মো. হা‌ফিজুর রহমান তার সঙ্গীয় ফোর্স নি‌য়ে এ‌সে ওই নারী‌কে উদ্ধার ক‌রে ন‌ড়িয়া উপ‌জেলা স্বাস্থ‌্য কম‌প্লে‌ক্সে ভ‌র্তি ক‌রেন। ওই নারীর স‌ঙ্গে থাকা জন্ম‌নিবন্ধন থে‌কে জানা যায়, উপ‌জেলার ডিঙ্গামা‌নিক ইউ‌নিয়‌নের কাঠহুগ‌লি গ্রা‌মের কালাচাঁন খাঁর মে‌য়ে সার‌মিন আক্তার নাম তার। তার বয়স ২২ বছর।

অসুস্থ্য হয়ে সড়কের পাশে পড়ে থাকা নারীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাকে দ্রুত চিকিৎসা দিয়ে আইসোলেশন ওয়ার্ডে নিয়ে যাচ্ছে নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা।

নড়িয়া থানা পু‌লি‌শের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও‌সি) ‌মো. হা‌ফিজুর রহমান ব‌লেন, আজ বি‌কেল ৩টার দি‌কে এক ব‌্যক্তি মু‌ঠো‌ফো‌নে জানান, ন‌ড়িয়া-ঘ‌ড়িসার সড়কে এক নারী মৃত অবস্থায় প‌রে আ‌ছে। ঘটনা‌টিশু‌নে থানার তদন্ত ও‌সি প্রবীণ কুমার চক্রব‌র্তী, এসআই মামুন খান ও ক‌নেস্টাবল তা‌মিম‌কে নি‌য়ে ঘটনাস্থ‌লে যাই। গি‌য়ে দে‌খি ওই নারী মারা জাননি। অজ্ঞান অবস্থায় প‌রে আ‌ছেন। তখন ভাবলাম তা‌কে বাঁচা‌তে হ‌বে। তাই ন‌ড়িয়া উপ‌জেলা স্বাস্থ‌্য ও প‌রিবার প‌রিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শ‌ফিকুল ইসলামকে বলে হাসপাতা‌লের অ‌্যাম্বু‌লেন্সে ক‌রে নি‌য়ে  উপ‌জেলা স্বাস্থ‌্য কম‌প্লে‌ক্সে ভ‌র্তি ক‌রি। তার পরিবারের স‌ঙ্গে যোগা‌যো‌গের চেষ্টা কর‌ছি।

ন‌ড়িয়া উপ‌জেলা স্বাস্থ‌্য ও প‌রিবার প‌রিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শ‌ফিকুল ইসলাম ব‌লেন, ওই নারী‌কে আই‌সো‌লেশন ওয়া‌র্ডে রে‌খে চি‌কিৎসা দেয়া হ‌চ্ছে। তার প্রেসার ও ডায়‌বে‌টিকস ভা‌লো আ‌ছে। অন‌্যান‌্য পরীক্ষা চল‌ছে। ত‌বে জ্ঞান এখনও ফি‌রেনি।
শেয়ার করুন-Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print

সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা

error: Content is protected !!