আজ বুধবার| ১৫ই জুলাই, ২০২০ ইং| ৩১শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ১৫ই জুলাই, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরে মাদকাশক্ত নির্বাহী প্রকৌশলী প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন

রবিবার, ২১ জুন ২০২০ | ৪:৪০ অপরাহ্ণ | 60 বার

শরীয়তপুরে মাদকাশক্ত নির্বাহী প্রকৌশলী প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মাদকাশক্ত এরশাদুজ্জামান মৃদুলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শরীয়তপুর কর্মরত সাংবাদিকরা। রোববার (২১ জুন) দুপুরে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন তারা। দ্রæত সময়ের মধ্যে তাকে প্রত্যাহার না করলে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুমকি দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা।

মানববন্ধন চলাকালে সাংবাদিক নেতারা ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান এবং দোষী ব্যক্তির শাস্তি দাবি করেন। পরে শরীয়তপুর প্রেসক্লাব ও শরীয়তপুর ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার, পল্লি উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবর স্বারকলিপি প্রধান করেন।

এ সময় শরীয়তপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি অনল কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার, সহসভাপতি শেখ খলিলুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক মনির হোসেন সাজিদ, শরীয়তপুর ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি রোকনুজ্জামান পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক শহিদুজ্জামান খান, প্রথম আলোর শরীয়তপুর প্রতিনিধি সত্যজিৎ ঘোষ, যমুনা টেলিভিশনের কাজী মনিরুজ্জামান, এনটিভি ও কালেরকন্ঠ আব্দুল আজিজ শিশির, শরীয়তপুর অনলাইন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. ছগির হোসেন, নড়িয়া উপজেলা প্রেসক্লাব ও ডামুড্যা উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকসহ শতাধিক উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে সাংবাদিকরা জানায়, গত বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে শরীয়তপুর ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি এবং এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাংবাদিক রোকনুজ্জামান পারভেজ ও জিটিভির সাংবাদিক মো. মানিক মোল্লা সংবাদ সংগ্রহের জন্য শরীয়তপুর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর নির্বাহী প্রকৌশলীর কক্ষে যান। যেয়ে দেখেন সেখানে নির্বাহী প্রকৌশলী এরশাদুজ্জামান মৃদুল নিজে গাজাসেবন করছেন এমন দৃশ্য ক্যামেরায় ধারণ করতে গেলে ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে তাদের মোবাইল, ক্যামেরা এবং গায়ে হাত দিয়ে তাঁদের লাঞ্ছিত করেন। একপর্যায়ে প্রকৌশলীর অফিসে ওই সাংবাদিকদেরকে আটকে রাখেন।

শরীয়তপুর ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শহিদুজ্জামান খান বলেন, দ্রæত সমায়ের মধ্যে মাদকাশক্ত নির্বাহী প্রকৌশলীকে প্রত্যাহার ও তার দৃষ্টান্তমূল শাস্তি না হলে আমরা আরও কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো।

শরীয়তপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ তালুকদার বলেন, শরীয়তপুর আশার পর থেকে ওই নির্বাহী প্রকৌশলী বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্ণীতি করে যাচ্ছেন। আবার অফিসে বসে মাদক সেবন করেন। সাংবাদিকরা এর ভিডিও করতে গেলে তাদের লাঞ্চিত করেন। এ সাহস তিনি পায় কোথায়?

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও শরীয়তপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি অনল কুমার দে বলেন, একজন মাদকাশক্ত অফিসার অফিসকক্ষে বসে মাদক সেবক করবে আবার সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করবেন এটা দুঃখজনক। আমার ওই কর্মকর্তাকে গ্রেফতার এবং সুষ্ঠ তদন্ত করে বিচার ও তার প্রত্যাহারের দাবী জানাচ্ছি।

শেয়ার করুন-Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print

সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা

error: Content is protected !!