আজ বুধবার| ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ| ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সরিষাবাড়ীতে পানির তোরে ঝিনাই নদীর ব্রীজ ভেঙ্গে দুই উপজেলার ২৫টি গ্রামের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

বুধবার, ২২ জুলাই ২০২০ | ৮:০৩ অপরাহ্ণ | 14 বার

সরিষাবাড়ীতে পানির তোরে ঝিনাই নদীর ব্রীজ ভেঙ্গে দুই উপজেলার ২৫টি গ্রামের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

মোস্তাক আহমেদ মনির, সরিষাবাড়ী ( জামালপুর) থেকে: জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ঝিনাই নদীর ওপর স্থাপিত ২০০ মিটার ব্রীজের একটি পিলার ও দুইটি গার্ডার বন্যার পানিতে ভেঙ্গে ভেসে গেছে। ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ায় দুই উপজেলার অন্তত ২৫ টি গ্রামের মানুষের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালে শুয়াকৈর-হদুর মোড় সংলগ্ন ঝিনাই নদীর ওপর ২০০ মিটার দৈর্ঘ্যের এ ব্রীজটি তৈরি করা হয়। হঠাৎ করে মঙ্গলবার সকালে বন্যার পানির তোড়ে ওই ব্রীজের মাঝামাঝি ২০ মিটার দৈর্ঘ্যের ২টি গার্ডারসহ ১টি পিলার প্রায় ১ ফুট ঢেবে যায়। খবর পেয়ে দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিহাব উদ্দিন আহম্মেদ, এলজিইডির প্রকৌশলী রাকিব হাসান ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হুমায়ূন কবীর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। সে সময় পুরো ব্রীজটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়েছে বলে মানুষ ও যান চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষনা করে উপজেলা প্রশাষন। পরে মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে ঢেবে যাওয়া পিলারসহ ২ টি গার্ডার মুল ব্রীজ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে নদীতে ভেসে যায়। ব্রীজটি ভাঙ্গার ফলে সরিষাবাড়ী ও মাদারগঞ্জ উপজেলার চরাঞ্চলের অন্তত ২৫টি গ্রামের মানুষের চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

শুয়াকৈর গ্রামের একেএম আশরাফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম দুলু ও সোনাকান্দর গ্রামের শামসুল হক বলেন, সরিষাবাড়ী উপজেলা শহরের সাথে আমাদের যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম ছিলো এই ব্রীজটি। সেটাও আজ ভেঙ্গে গেলো। আমাদের চলাচলের আর কোন রাস্তা নেই। একটা মানুষ অসুস্থ্য হলেও হাসপাতালে নেয়ার মতো কোন ব্যবস্থা নেই। আমাদের দাবী যাতে অতি তারাতারি আমাদের এই দুই উপজেলার মানুষের চলাচলের একমাত্র রাস্তার এই ব্রীজটি ঠিক করে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহমদ জানান, ব্রীজটির একাংশ দেবে যাওয়ার খবর পেয়ে আমি গিয়েছিলাম। আর মঙ্গলবার দুপুরেই সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ করা হয়েছিলো। পরে মঙ্গলবার রাতেই ব্রীজটি ভেঙ্গে পানিতে ভেসে গেছে।

শেয়ার করুন-Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print

সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা

error: Content is protected !!