আজ বুধবার| ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ| ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

শিবগঞ্জে দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে স্বাবলম্বী করছে সমাজসেবা অফিস

বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই ২০২০ | ১০:৪৮ অপরাহ্ণ | 10 বার

শিবগঞ্জে দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে স্বাবলম্বী করছে সমাজসেবা অফিস

আতিক ইসলাম সিকো, শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) থেকে:  চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা অফিসের প্রচেষ্টায় ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে বিনা মুনাফায় ক্ষুদ্র লোন বিনিয়োগের মাধ্যমে ৫শ’ হতদরিদ্র মানুষকে স্বাবলম্বী হয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যে আরো সহ¯্রাধীন হতদরিদ্র মানুষ স্বাবলম্বী হতে যাচ্ছে। বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে বিনা মুনাফায় এ সমস্ত লোন দেয়া হয়। উপজেলা সমাজসেবা অফিস গত ২০১৬-১৭ অর্থবছর থেকে এ ধরণের লোন কার্যক্রম শুরু করেছে, যা বর্তমানে অব্যহত রয়েছে।

সমাজসেবা অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ পর্যন্ত শিবগঞ্জে ২৮ হাজার ২৫৮ জনকে বিনা মুনাফায় লোন দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে রাজস্ব খাত থেকে ৩ হাজার হত দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে ২ লাখ ২৯ হাজার টাকা, ইডিএম খাত থেকে ৪ হাজার ৫শ’ জনের মাঝে ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩১২ টাকা, বিশেষ বরাদ্দ খাত থেকে ৬ হাজার ৫শ’ জনের মাঝে ১১ লাখ টাকা, মাতৃকেন্দ্রের ৩য় পর্ব খাত থেকে ২ হাজার জনের মাঝে ১ লাখ ৯২ হাজার টাকা, মাতৃকেন্দ্রে ষষ্ঠ পর্ব খাত থেকে ৪ হাজার ৬শ’ জনের মাঝে ৯ লাখ ৪৩ হাজার ৭শ’ টাকা, ওয়ার্কিং ক্যাপিট্যাল খাত থেকে ৭শ’ জনের মাঝে ৯৫ হাজার টাকা, সম্প্রসারিত পল্লী উন্নয়ন কার্যক্রম খাত থেকে ৫ হাজার ৩শ’ জনের মাঝে ১২ লাখ ৩ হাজার ৫ টাকা, এসিড দগ্ধ ও শারীরিক প্রতিবন্ধী খাত থেতে ১ হাজার ২৫৭ জনের মাঝে ১৫ লাখ ৬৭ হাজার ২শ’ ৮৭ টাকা ও আর এস এস খাত থেকে ৪৭১ জনের মাঝে ৭৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা বিনা মুনাফায় লোন বিনিয়োগ করা হয়েছে। মোট ২৮ হাজার ২৫৮ জন হতদরিদ্রের মঝে ১ কোটি ২৭ লাখ ৫০ হাজার ৭৯৯ টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে।

সুত্র জানায়, উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের অসহায় ও হতদরিদ্রদের নিয়ে প্রথমে নি¤েœ ১৫ থেকে উদ্ধে ৩০ জন সদস্য দিয়ে সমিতি গঠন করে সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মাধ্যমে তাদের পর্যবেক্ষণ করা হয়। তাদের বিভিন্ন কর্মের উপর প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। তারপর প্রত্যেক সদস্যকে নি¤েœ ১০ হাজার ও উদ্ধে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত লোন দেয়া হয়। সে টাকা দিয়ে বাংলার ঐতিহ্যবাহী কুটির শিল্পের আওতায় বিভিন্ন ধরনের জিনিস তৈরী করে গ্রামে ও বাজারে বিক্রি করে মুনাফা অর্জন করে। প্রথমে সদস্যরা কিছু বুঝে উঠার আগেই টাকা অন্যখাতে খরচ করে দেয়। পরে তাদের আবারো বিনা মুনাফায় লোন দেয়া হয় এবং আরো ভালভাবে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এভাবে ৪-৫ বার লোন দেয়ার পর তারা নিজেদেরকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলতে পারে। এ ধরনের লোন কার্যক্রম গত ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছর থেকে শুরু হয়েছে এবং গত ২০১৯-২০২০ অর্থবছরেও দেয়া হয়েছে। লোন দেয়ার এক বছর পর সমুদয় টাকা উত্তোলন করা হয়। পরে আবার তাদেরকে একই ভাবে লোন দেয়া হয়। তবে নতুন নতুন সমিতি হলে তাদেরকেও দেয়া হয়। এভাবেই ক্ষৃদ্র ক্ষুদ্র লোনের মাধ্যমে অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষগুলোকে সমাজসেবা দপ্তরের প্রচেষ্টায় স্বাবলম্বী করা হচ্ছে। যা দ্রæত গতিতে তারা এগিয়ে চলেছে।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কাঞ্চন কুমার দাস বলেন, ১৯৭৪ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদ্যোগে পল্লী সমাজসেবা কার্যক্রম (আর এস এস) সম্প্রসারণের মাধ্যমে হতদরিদ্রদের স্বাবলম্বী করার স্বপ্ন দেখেন। যার কার্যক্রম দ্রæত গতিতে অগ্রসর হলে পরবর্তীতে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে রুপান্তরিত হয়। তারাই ধারাবাহিকতায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের প্রচেষ্টায় তিল তিল করে সমাজের অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষগুলোকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলা হচ্ছে। উপজেলা সমাজসেবা অফিসের উদ্যোগে এ পর্যন্ত লোন কার্যক্রমের মাধ্যমে ৫শ’ জন সদস্য স্বাবলম্বী হয়েছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে আরো ৫ জন সদস্য স্বাবলম্বী হবে। আমাদরে লক্ষ্য রয়েছে, শিবগঞ্জের শতভাগ হতদরিদ্র ও অসহায়দের স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করবো।

শেয়ার করুন-Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print

সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা

error: Content is protected !!