আজ বুধবার| ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ| ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কেশবপুরে করোনা সন্দেহে মৃত্যু হিন্দু নারীর সৎকারে স্বজাতিরা এগিয়ে না আসায় সৎকার করলেন মুসলমানরা

শনিবার, ২৫ জুলাই ২০২০ | ৭:৪৪ পূর্বাহ্ণ | 27 বার

কেশবপুরে করোনা সন্দেহে মৃত্যু হিন্দু নারীর সৎকারে স্বজাতিরা এগিয়ে না আসায় সৎকার করলেন মুসলমানরা

জাহিদ আবেদীন বাবু, কেশবপুর (যশোর) থেকে: যশোরের কেশবপুরে জগৎতারা নন্দন নামে এক হিন্দু নারী বার্ধক্যজনিত কারণে শুক্রবার ভোর ৪ টার দিকে মারা যায়। করোনায় ঐ নারীর মৃত্যু হয়েছে এমন সন্দেহে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন তার সৎকারে এগিয়ে আসেনি। ফলে স্থানীয় চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দিনের নের্তৃত্বে মুসলমানরা ঐ নারীর সৎকার করেছেন।

জানা গেছে, কেশবপুর উপজেলার মূলগ্রাম গ্রামের রামপদ নন্দনের স্ত্রী জগৎতারা নন্দন (৮৫) বার্ধক্যজনিত কারণে শুক্রবার ভোর ৪ টারদিকে মারা যায়। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঐ নারীর মৃত্যু হয়েছে এমন সন্দেহে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সৎকারে কোনভাবে এগিয়ে আসতে রাজি হয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দিন, মাহাবুর, হাসান, জাকির, তৌহিদ, কনক দত্তসহ কয়েকজন মিলে শুক্রবার দুপুরের ঐ নারীর সৎকার করে।

এব্যাপারে চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দিন জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে ঐ নারী মারা গেলেও করোনায় মৃত্যু হয়েছে এমন সন্দেহে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সৎকারে এগিয়ে আসেনি। বিষয়টি প্রশাসনকে জানিয়ে মেম্বার নিমাই চন্দ্র দাস, মাহাবুর, হাসান, জাকির, তৌহিদ, কনক দত্তসহ স্থানীয় লোকজন নিয়ে ঐ নারীর সৎকার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য গত ১৫ জুলাই ঐ নারীর ছেলে শীতল নন্দন মারা যায়। সে সময়ও করোনায় মৃত্যু হয়েছে সন্দেহে শীতলের সৎকারে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন অনীহা দেখায়। পরে শীতলের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়া যায়।

শেয়ার করুন-Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print

সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা

error: Content is protected !!