আজ বুধবার| ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ| ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ১২ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বেনাপোলের পল্লীতে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন: ঘাতক আটক

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুলাই ২০২০ | ৩:৫৫ পূর্বাহ্ণ | 41 বার

বেনাপোলের পল্লীতে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন: ঘাতক আটক

বেনাপোলের পল্লীতে নেশার টাকার দাবিতে আপন ভাই রাসেল (৩৭) কে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করেছে পাষন্ড ভাই আমজাদ হোসেন(৩২)। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ এবং ঘটনার ২ ঘন্টার মধ্যে সাদিপুর সীমান্তের ইছামতি নদী থেকে খুনী আমজাদকে পিস্তল-গুলি, ম্যাগজিন, চাকু ও ফেন্সিডিলসহ আটক করেছেন। খুনের শিকার রাসেল বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপুকুর গ্রামের ইদ্রিস আলী ইদুর ছেলে এবং বেনাপোল নূর শপিং কমপ্লেক্স মার্কেটের কসমেটিক্স ব্যবসায়ী। পাষন্ড খুনী আমজাদ হোসেন হত্যার শিকার রাসেলের আপন ছোট ভাই। বুধবার বেলা সাড়ে ১০ টার সময় এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে তাদের নিজ বাড়িতে। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের মাতম চলছে।

নিহতে চাচা আব্দুল করিম বলেন, মঙ্গলবার রাতে নেশার জন্য আমজাদ তার ভাই রাছেল এর কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। এ নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টার সময় আবার সে টাকা দাবি করে। যা দিতে অস্বীকার করলে আবারো কথা কাটাকাটির এক সময়ে ছোট ভাই আমজাদ বড় ভাই রাসেলের গলায় পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে। পরে স্থানীয়রা এসে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নাভারন হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

বেনাপোল সদর কোম্পানী কমান্ডার সুবেদার আব্দুল ওহাব বলেন খুনী আমজাদ হোসেন ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোক মারফত প্রথমে আমরা আমজাদকে আটক করি। পরে তার নাম জানতে চাইলে সে তার নাম আলী হোসেন বলে জানায়। আমরা নিশ্চিত হতে না পেরে ওই যুবককে ছেড়ে দেওয়ার পর পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে বেনাপোল পোর্ট থানার এএসআই আলমগীর হোসেন বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং আসামী আমজাদ ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাকে সাদিপুর সীমান্তের ইছামতি নদীতে ধাওয়া করা হলে সে আমাদেরকে গুলি করতে উদ্যত্ত হয়। পরে অনেক কৌশল অবলম্বন করে তাকে আটক পূর্বক তার কাছ থেকে ১ টি পিস্তল ভর্তি ম্যাগজিনসহ ৩ রাউন্ড গুলি, দু’পাশে ধারালো ১ টি চাকু ও ৩ বোতল ফেন্সিডিল জব্দ করা হয়েছে। ইতিপূর্বে তার নামে বেনাপোল পোর্ট থানায় মাদকসহ দু’টি মামলা আছে।

বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মামুন খান ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার ২ ঘন্টার মধ্যে এসআই রোকন উদ্দিন ও এএসআই আলমগীর হোসেন খুনী আমজাদ হোসেনকে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় আটক করে থানায় নিয়ে আসে। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে। বৃহস্পতিবার সকালে তাকে যশোর আদালতে প্রেরণ করা হবে।

শেয়ার করুন-Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print

সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা

error: Content is protected !!