ঢাকা, শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শরীয়তপুরে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ৮০ জেলে আটক

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: সরকারের পক্ষ থেকে সারাদেশে একযোগে মা ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তবে নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই নদীতে নামছে জেলেরা।

 

এই নিষেধাজ্ঞা জেলেসহ মৌসুমী জেলেদের মাছ ধরা থেকে বিরত রাখার জন্য শরীয়তপুরের নড়িয়ায় পদ্মা নদীতে অভিযান চালায় নড়িয়া উপজেলা মৎস্য বিভাগ ও নৌ পুলিশ। প্রতিদিন শরীয়তপুর জেলার জাজিরা নড়িয়া ভেদরগঞ্জ গোসাইরহাট এলাকায় নিয়মিত অভিযান চালানো হয়। তবুও সুযোগ পেলেই নদীতে নেমে অবাধে মাছ ধরছেন এখানকার জেলে ও মৌসুমী জেলেরা।

 

আজ রোববার ভোররাতে পদ্মা নদীতে অভিযান চালিয় নড়িয়া উপজেলা মৎস্য বিভাগ ও সুরেশ্বর নৌ-পুলিশ ফাঁড়ি। এ সময় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ৫০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, একটি স্প্রীট বোর্ড ও ২০৯ কেজি মা ইলিশ সহ ৪২ জন জেলে আটক করা হয়।

 

এর আগে গতকাল বিকেলে ভেদরগঞ্জ উপজেলার পদ্মা নদীতে অভিযান চালায় ভেদরগঞ্জ উপজেলা মৎস্য বিভাগ। এসময় ১৫ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল সহ ৩৮ জেলেকে আটক করা হয়। এর মধ্যে ২৮ জেলেকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং বাকিদের কে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন ভেদরগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা তানভির আল নাসিফ।

আজ নড়িয়ায় আটককৃত ৪২ জন জেলেকে এখন পর্যন্ত কোনো সাহায্য প্রদান করা হয়নি তবে এদেরকে এক বছরের বিনাশ্রম তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন উপজেলা নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মোর্শেদুল ইসলাম।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা তানভির আল নাসিফ বলেন, সরকারের আদেশ অনুযায়ী আমরা প্রতিনিয়ত নদীতে অভিযান চালাচ্ছি। আমাদের এই অভিযান চলমান আছে এবং সরকারি সম্পদ রক্ষায় আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।


error: Content is protected !!