ঢাকা, শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শ্রীনগরে আ’লীগের সম্মেলনে অস্ত্র প্রদর্শন করে প্রতিপক্ষকে ইউপি চেয়ারম্যানের ভাইয়ের হুমকি

অধীর রাজবংশী, শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর ইউনিয়নের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে পুলিশের সামনে শর্টগান দেখিয়ে প্রতিপক্ষকে হুমকি প্রদান করেছে ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই। শনিবার দুপুর ২টার দিকে ষোলঘর একেএসকে উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সম্মেলনে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরীর বক্তৃতাকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে নিজের শর্টগান প্রদর্শন করে হুমকি প্রদান করে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আজিজুল ইসলামের ভাই নজরুল ইসলাম মাহি। এসময় নজরুল ইসলামের লোকজন সভা স্থলের চেয়ার ভাংচুর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

প্রতক্ষদর্শীরা জানায়, পূর্ব ঘোষনা অনুযায়ী ষোলঘর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন শুরু হয়। সম্মেলনে বেশ কিছুদিন ধরে ষোলঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম সমর্থিত শাহজালাল প্যানেল ও অপর পক্ষ মোয়াজ্জেম হোসেন প্যানেলের সাথে কাউন্সিলর নিয়ে উত্তেজনা চলে আসছিল।

শনিবার সম্মেলনে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সভাপতি ও মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী তার বক্তৃতায় বর্তমান ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহজালালের গত ১৫ আগস্টের নৌভ্রমন নিয়ে প্রশ্ন তুলেন। এসময় শাহজালাল মাইকের কাছে গিয়ে নুরুল আলম চৌধুরীর বক্তব্যের প্রতিবাদ করলে বাকবিতন্ডা ও হট্টোগোল শুরু হয়। এক পর্যায়ে শাহজালালের পক্ষ নিয়ে ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাগর হোসেন দৌড়ে গিয়ে শর্টগান এনে আজিজুল ইসলামের ভাই নজরুল ইসলামের হাতে তুলে দেয়। এসময় নজরুল ইসলাম মঞ্চের পাশে দাড়িয়ে শর্টগান প্রদর্শন করে উচ্চবাচ্য শুরু করে এবং প্রতিপক্ষের লোকজনকে হুমকি প্রদান করে। নজরুল ইসলামের পাশে মঞ্চের উপর দাঁড়িয়ে ছিলেন শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হেদায়াতুল ইসলাম ভুঞা ও ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম। এমন ঘটনায় উপস্থিত কাউন্সিলর ও নেতা কর্মীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পরে। পরে লাঠি চার্জ করে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

 

সম্মেলনের মঞ্চে এসময় উপস্থিত ছিলেন মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বঙ্গবন্ধুর চীফ সিকিউরিটি অফিসার মহিউদ্দিন আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ লুৎফর রহমান, যুগ্ন সম্পাদক এডভোকেট আবুল কাশেম, ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সারোয়ার কবির, শ্রীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ তোফাজ্জল হোসেন, সহ সভাপতি সেলিম আহমেদ ভূইয়া, শ্রীনগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ওয়াহিদুর রহমান জিঠু প্রমুখ।

 

সম্মেলনে সংগঠিত এমন পরিস্থিতিতে সবাই হতবাক হয়ে যায়। পরবর্তীতে সম্মেলনের প্রধান অতিথী ও বিশেষ অতিথীদের বক্তব্যে বিষয়টি নিয়ে কড়া সমালোচনা উঠে আসে।

 

সম্মেলনে অস্ত্র প্রদর্শন নিয়ে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হেদায়াতুল ইসলাম ভুঞা বলেন, হট্টগোল হয়েছিল। পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করার পর সেখানে নির্বাচন চলছে। অস্ত্র প্রদর্শণের ব্যাপারে কেউ কোন জিডি বা সাধারণ ডায়েরি সন্ধ্য্যা নাগাদ করেনি।


error: Content is protected !!