ঢাকা, শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
পাথরঘাটা পৌর নির্বাচন

আওয়ামী লীগের গলার কাঁটা বিদ্রোহী প্রার্থী! কোন্দলবিহীন ফুরফুরে মেজাজে বিএনপি

অমল তালুকদার,পাথরঘাটা, বরগুনা থেকে: বরগুনার পাথরঘাটা পৌরনির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর গলার কাঁটা বিদ্রোহী প্রার্থী। অপরদিকে বিএনপিতে কোনো দলীয় কোন্দল না থাকায় তারা বেশ উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিএনপি ,আওয়ামীলীগ ,স্বতন্ত্র, বিদ্রোহীসহ ৫ প্রার্থী-ই চালাচ্ছেন প্রতিদিন গণসংযোগ, উঠান বৈঠক ইত্যাদি।

ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীকে জেতানোর জন্য সব সরকারের আমলেই মরিয়া থাকে তাদের নেতাকর্মীরা।

 

পাথরঘাটাতেও ব্যতিক্রম হওয়ার কথা নয় কিন্তু এখানকার সরকারি দলের মেয়র প্রার্থীতা নিয়ে শুরু থেকেই নানা প্রশ্ন ওঠে। গত ৫ বছর ক্ষমতায় থাকা সময়ে বর্তমান মেয়র আনোয়ার হোসেন আকন এই পৌরশহরের শ্রীবৃদ্ধি রক্ষায় উল্লেখযোগ্য কোনো ভূমিকা রাখেননি বলে তার বিরুদ্ধে পৌরবাসীর অভিযোগ ছিলো দীর্ঘদিনের যে কারনে স্থানীয় আ.লীগে প্রকৃত বঙ্গবন্ধুর সৈনিকরা কাকে নিয়ে ফের ভোটারদের দ্বারমুখো হবেন;এমন প্রশ্নটি মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে শুরু থেকেই। সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটে আবার আনোয়ার হোসেন আকনের নৌকার মনোনয়ন প্রাপ্তির মধ্য দিয়ে।

এখন প্রায় প্রতিদিন গণসংযোগে ব্যস্ত রয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ তাদের প্রার্থী আনোয়ার হোসেন আকনকে নিয়ে।

আসন্ন পৌরনির্বাচনে পাথরঘাটা পৌরসভায় আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে তিনবারের নির্বাচিত মেয়র ও পাথরঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আনোয়ার হোসেন আকনকে জেতাতে মাঠে কাজ করছেন দলীয় নেতাকর্মীরা।

 

অপরদিকে তার বিরুদ্ধে মাঠ দখলে রাখতে ৪ স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজ করছেন বিরামহীন গতিতে। এখানে বিএনপির কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী না‌থাকায় ধানের শীষের দলীয় মনোনীত প্রার্থী সাবেক পৌর বিএনপির সভাপতি সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাহাবুদ্দিন সাকু রয়েছেন বেশ ফুরফুরে মেজাজে। দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন ওয়ার্ডে মানুষের সঙ্গে তিনি মতবিনিময় করে যাচ্ছেন।

অপরদিকে জাতীয় শ্রমিকলীগ পাথরঘাটা উপজেলা শাখার সভাপতি বর্তমান ওয়ার্ড কাউন্সিলর বিএফডিসি ঘাটশ্রমিক ইউনিয়নের একাধিকবার নির্বাচিত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার কারনে বেকায়দায় পরেছেন আ.লীগে প্রার্থী।

বয়সে তরুণ সোহেল যেখানেই গণসংযোগ কিংবা মত বিনিময় করতে যাচ্ছেন; সেখানে বিপুল সংখ্যক মানুষ‌ ভিড় করছেন। যেটি নৌকার প্রার্থীর জন্য বিব্রতকর অবস্থা।

এদিকে নৌকার মনোনয়ন তালিকা থেকে বাদ পড়া অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শাহ আলম মল্লিক রয়েছেন স্বতন্ত্র হয়ে মাঠে।

তবে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে আলোচিত হিসেবে রয়েছেন বর্তমান ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ঠিকাদার খান মাহবুবুর রহমান। তিনি সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তাকে মাঠে কাজ করতে দিচ্ছেন না। তাকে লাঞ্ছিত করছেন পথে-ঘাটে এবং তার বাড়িতে হামলা ও করেছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন,গণসংযোগ ও মতবিনিময় যথাযথভাবে করতে না দেয়ায় আমার কর্মী সমর্থক ও ভোটাররা রয়েছেন আতঙ্কে।

স্থানীয় আ.লীগ মনে করছে বিভেদ ভুলে নেতাকর্মী সমর্থকদের নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করলে আবারো এই পৌরসভার চেয়ারটি তাদেরই থাকবে। অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর দাবি পাথরঘাটা পৌরসভা টি চরম অবহেলিত। বর্তমান মেয়র এখানকার উন্নয়নে কোনো কাজ-ই করেননি। তিনি তার নিজের আখের গুছিয়েছেন। এই সরকার থেকে মানুষ মুক্তি চায় । সে কারণে বিএনপি একযোগে মাঠে কাজ করলে বিজয় তাদের সুনিশ্চিত।

তবে বিএনপি-আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাপিয়ে সকল কিছুতে যেনো বাধ সেধেছেন মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল! উন্নয়নের রোলমডেল হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি পাওয়া ৬ নং ওয়ার্ডের আদলে যারা পাথরঘাটা পৌরশহর কে সাজানো দেখতে চান; তারা কেবল কাউন্সিলর মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলকেই দেখতে চাইছেন পৌরসভার চেয়ারে। আর নানা চাপে আপাতত কোণঠাসা রয়েছেন অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুবুর রহমান খান।

নির্বাচনের ডামাডোলে সরব পাথরঘাটা পৌরবাসী কাকে নিয়ে হাসবেন বিজয়ের হাসি? সেটি দেখতে অপেক্ষা করতে হবে ৩০ তারিখ পর্যন্ত।


error: Content is protected !!