ঢাকা, রবিবার, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, রবিবার, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে জেএমবি নেতার ২০ বছর কারাদণ্ড

নিষিদ্ধি ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) চট্টগ্রাম জেলা শাখার সাবেক কমান্ডার এরশাদ হোসাইন ওরফে মামুনকে ২০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। 

একই সঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও এক বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বাকি ৩ আসামিকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

 

খালাসপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, বুলবুল আহমেদ সরকার ওরফে ফুয়াদ (২৬), মো. সুজন (২৪) ও মাহাবুবুর রহমান ওরফে খোকন (৩৫)।

মঙ্গলবার (৯ মে) চতুর্থ অতিরিক্ত চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শরীফুল আলম ভুঁঞা এ রায় ঘোষণা করেন।

বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট আদালতের বেঞ্চ সহকারী ওমর ফুয়াদ।

 

তিনি বলেন, গত ১১ এপ্রিল আলোচিত মামলাটির যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়। আজ (মঙ্গলবার) নির্ধারিত দিনে রায় ঘোষণা করেন আদালত।

আদালত সূত্র জানায়, গোপন বৈঠকের খবর পেয়ে ২০১৫ সালের ২৩ মার্চ নগরের আকবরশাহ থানার এনআর স্টিল মিলের সামনের একটি ভাড়া করা ঘরে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় আসামি এরশাদ হোসাইনকে বিস্ফোরক দ্রব্য ও বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় আকবর শাহ থানায় এরশাদের নাম উল্লেখ এবং দুই থেকে তিনজন অজ্ঞাতনামাকে আসামি করে মামলা দায়ের করে পুলিশ।

এদিকে ২০১৫ সালের শেষের দিকে নগরের কর্ণফুলী থানা এলাকা থেকে বুলবুল আহমেদ, মো. সুজন ও মাহাবুবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তীতে তাদেরকে আকবর শাহ থানায় দায়ের হওয়া মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। ২০১৬ সালের এপ্রিলে আকবর শাহ থানা পুলিশ চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। এরপর ২০২০ সালের ২৪ নভেম্বর চার জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ গঠন হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে আজ (মঙ্গলবার) রায় ঘোষণা করেন আদালত।


error: Content is protected !!