ঢাকা, মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অ্যাপের মাধ্যমে ইয়াবা বিক্রি করেন তিনি!

চট্টগ্রাম নগরের লালদিঘীর পাড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩৫০ পিস ইয়াবা, ইয়াবা বিক্রির টাকা সহ এক ইলেক্ট্রনিক পণ্যের ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি অ্যাপের মধ্যমে ইয়াবা বিক্রি করেন বলে দাবি পুলিশের।

 

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) পুলিশের পক্ষ থেকে মো. আবদুল করিম (৩৯) নামে ওই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের কথা জানানো হয়।

 

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে আজ ভোরে নিউমার্কেট মোড়ের কাছ থেকে আবদুল করিমকে (৩৯) আটক করা হয়। এ সময় তার দেহ তল্লাশি করে ৩৫০ পিস ইয়াবা ও ইয়াবা বিক্রয়ের নগদ ২৬ হাজার ৩০০ টাকা জব্দ করা হয়।

 

ওসি আরো জানান, আবদুল করিম ইলেকট্রনিক্সের ব্যবসা করে বলে জানা গেছে। তিনি কক্সবাজার থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করেন। এরপর ইয়াবা ক্রেতাদের সাথে একাধিক অ্যাপের মাধ্যমে যোগাযোগ করেন। এভাবেই ইয়াবা কারবারি চালাচ্ছিল করিম।

 

ওসি জানান, আবদুল করিম হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার, ইমু, টেলিগ্রামের মতো অ্যাপ ব্যবহার করে ইয়াবা বিক্রি করতেন। মূলত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ফাঁকি দেওয়া ও সহজে যোগাযোগ করে ইয়াবা বিক্রয় করার জন্য অ্যাপ ব্যবহার করতেন। চট্টগ্রাম মহানগর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন জেলার ইয়াবা সেবনকারী ও কারবারিরা তার থেকে ইয়াবা ক্রয় করতেন।

 

জানা গেছে, আবদুল করিম কয়েকদিন আগেও সাউন্ড বক্সের মাধ্যমে ছয় হাজার পিস ইয়াবা পাচারকালে ডিবির হাতে গ্রেপ্তার হয়েছিল। জামিনে এসে পুনরায় ইয়াবা পাচারকালে গতকাল আবার গ্রেপ্তার হয়। এ ছাড়া আসামির ভাই আবদুল খালেক প্রকাশ বাবলা ১১ হাজার ৭৭৫ পিস ইয়াবাসহ কক্সবাজারের রামুতে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন।

 

ওসি জানান বলেন, আবদুল করিমের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। রবিবার রিমান্ড শুনানি হতে পারে। তার করিমের বাড়ী চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার বারদোনা এলা


error: Content is protected !!