ঢাকা, মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শরীয়তপুর গোসাইরহাটে জমির জন্য মাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় এক ব্যক্তি কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে তার মাকে হত্যা করেছেন। বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
নাগেরপাড়া ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।এ ঘটনায় পুলিশ ওই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করেছে।
নিহত মায়ের নাম আনোয়ারা বেগম (৬০)। তিনি লক্ষীপুর গ্রামের মতিন খানের স্ত্রী। তাকে হত্যার অভিযোগে তার ছেলে সালেক খানকে (৪০) আটক করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে আনোয়ারা বেগমের ছোট ছেলে বারেক খান অভিযোগ করে বলেন, আমার ভাই মালেক ২টা বিয়ে করেছে। ২য় বিয়ে করায় প্রথম স্ত্রী আকলিমা বেগম (৩০) তার বিরুদ্ধে মামলা করে। সেই মামলায় জেলও খেটেছে। জেল খেটে বের হওয়ার পর মালেক পাগলামী করতো। মালেক ভাবতো আমার বোন লুৎফা বেগমকে (৩০) মা-বাবা জমি লিখে দিয়েছে। তাই বেশ কয়েকদিন যাবত মা-বাবার ওপর মালেক ক্ষিপ্ত।

বোরবার মাগরিব নামাজ শেষে চা তৈরি করার জন্য রান্না ঘরে যাচ্ছিল মা। তখন হঠাৎ করে ধারালো কুড়াল দিয়ে মাকে মাথায় কোপ দেয় মালেক। মা মারা গেছে, কাকে মা বলে ডাকবো?

 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মালেক কুড়াল দিয়ে কোপায় তার মা আনোয়ারা বেগমকে। গুরুতর আহত অবস্থায় পরিবার ও স্থানীয়রা তাকে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু বলে ঘোষনা করে। ঘটনার পর রাতেই ক্ষুদ্ধ গ্রামবাসী মালেককে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেন।

 

এ বিষয়ে গোসাইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা সোহেব আলী জানান, জমির জন্য মাকে হত্যা করেছে ছেলে। ঘটনার পর অভিযুক্ত মালেককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মালেকের বাবা মতিন খান বাবা বাদী হয়ে মালেকের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন।


error: Content is protected !!