ঢাকা, বুধবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বুধবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ঝিকরগাছায় স্ত্রীর লাঠির আঘাতে স্বামীর মৃত্যু

ইয়ানূর রহমান : যশোরের ঝিকরগাছায় স্ত্রীর লাঠির আঘাতে মুস্তাকিন হোসেন সুমন (২৮) নামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১৭ মার্চ) বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। সুমন ঝিকরগাছা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের ফুলবাড়ি গ্রামের দাউদ হোসেনের ছেলে। থানা পুলিশ ঘাতক স্ত্রী দুই কন্যা সন্তানের জননী মিনা খাতুনকে (২৬) আটক করেছে। তিনি একই এলাকার ঘোড়াদহ গ্রামের নিহান শেখের মেয়ে।

নিহতের ভাতিজা ফিরোজ হোসেন জানান, ১৪ মার্চ দুপুরে মিনা খাতুনের ভাই বোন ও মা তাদের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। ওইদিন বিকেলে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মিনা তার স্বামীর মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করলে তিনি মারাতœকভাবে আহত হন। এ সময় প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেন। অবস্থার অবনতি হলে পরে তাকে খুলনা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসক
তাকে ঢাকায় রেফার্ড করেন।

১৬ মার্চ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে অ্যাপােলো হাসপাতালে ভর্তি করলে বুধবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়। বুধবার গভীর রাতে তার মরদেহ যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়। ঝিকরগাছা থানার এস আই হেলালুজ্জামান লাশের সুরাতহাল রিপোর্ট করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠায়।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার সকালে সুমনের মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে ঘাতক মিনা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। স্থানীয় মহিলারা তাকে ধরে ঘরের মধ্যে আটকে রেখে পুলিশকে সংবাদ দেয়। পরে পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে আসে। তবে সুমনের প্রতিবেশীরা জানান, সুমন ও তার মা নাসিমাকে ইতোপূর্বে একাধিকবার মিনা মারপিট করেছে।

ঝিকরগাছা থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক স্ত্রীর লাঠির আঘাতে স্বামীর মৃত্যুর কথা স্বীকার করেছেন। স্ত্রী মিনাকে আটক করা হয়েছে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।


error: Content is protected !!