ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শরীয়তপুরে হুঁ হুঁ করে বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরে হঠাৎ করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তর সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ক‌রে আরও একুশজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। আজ সোমবার (৫ এপ্রিল) এ তথ্য জানান শরীয়তপুরের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. মাসুদ।

 

গত ২ এপ্রিল শনাক্ত হয়েছিল ৯ জন এবং আর ৩ এপ্রিল কোন করোনা শনাক্ত হয়নি।

 

ডা. এফ এম মাসুদ হাসান জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও একুশজনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে। তাদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১০ জন, ন‌ড়িয়া উপ‌জেলায় ৩ জন, ভেদরগঞ্জে উপজেলায় ৩ জন ও জা‌জিরা উপ‌জেলায় ২ জন ও গোসাইরহাট উপজেলায় ৩ জন।

 

তিনি জানান, বর্তমানে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আইসোলেশনে

রয়েছে ৯ জন। বাকি ১২ জনের সবারই নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় ১০ হাজার ৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে এক হাজার ৯৯৩ জন করোনা প‌জে‌টিভ। বাকি ৮ হাজার ১৪জন নেগেটিভ। এছাড়া জেলায় ক‌রোনায় আক্রান্ত হ‌য়ে এ পর্যন্ত ২৬ জন মৃত্যুবরণ করেন।

 

এদিকে করোনা আক্রান্ত সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। ‌গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৫ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে আগামী ১১ এপ্রিল রাত ১২টা পর্যন্ত সকল প্রকার গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। তবে পন্যপরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা, জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এ আদেশ প্রযোজ্য হবে না। আইনশৃঙ্খলা ও জরুরি পরিসেবা এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বহির্ভূত থাকবে। সকল সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত অফিস ও আদালত এবং বেসরকারি অফিস জরুরি কাজ সম্পাদনের জন্য সীমিত পরিসরে প্রয়োজনীয় জনবলকে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব পরিবহন ব্যাবস্থায় অফিসে আনা নেয়া করতে পারবে। জরুরি প্রয়োজন ব্যতিত কোন ভাবে বাহিরে বের হওয়া যাবে না।

খাবারের দোকান ও হোটেল, রেস্তোরাঁ কেবল খাদ্য বিক্রি/সরবরাহ করা যাবে। কোন ভাবেই খাবারের দোকান ও হোটেল, রেস্তোরাঁ বসে খাবার খাওয়া যাবে না। শপিংমলসহ অন্যান্য দোকানসমূহ বন্ধ থাকবে। তবে দোকানসমূহে পাইকারি ও খুচরা পন্য অনলাইনের মাধ্যমে ক্রয় বিক্রয় করতে পারবে। কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্য উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ক্রয় বিক্রয় করতে পারবে।

 

এদিকে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আজ সোমবার দুপুরে সদর উপজেলা ও সদর পৌরসভা এলাকায় ভ্রাময়মাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারীকে ৭ হাজার ৫০০টাকা জরিমানা করা হয় এবং ১২ ব্যক্তিকে মামলা দেয়া হয়। পাশাপাশি সচেতনতা বৃদ্ধি ও বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়।

 

এসময় এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মনদীপ ঘরাই, মো. সাইফুল ইসলাম ও মো. বাসিত সাত্তার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।


error: Content is protected !!