ঢাকা, বুধবার, ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বুধবার, ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

করোনা রোগীদের জন্য চালু হচ্ছে সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল

প্রতিনিয়তই সারা দেশে বাড়ছে  করোনা রোগীর সংখ্যা। নতুন সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। তাই আগামী রোববার চালু হতে যাচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল । ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মহাখালী কাঁচাবাজার মার্কেট ছয় তলা ভবনে করোনা হাসপাতাল চালু করা হবে। তবে মার্কেটে এতোদিন করোনা আইসোলেশন সেন্টার এবং বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষার ল্যাব হিসেবে ব্যবহৃত হতো। আগামী রোবার করোনা হাসপাতালের কার্যক্রম চালু হলেও পৃথকভাবে আগের সেবাগুলো চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 

 

করোনা রোগীদের জন্য ১ হাজার বেডের ওই হাসপাতালের নাম দেয়া হয়েছে ‘ডিএনসিসি ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতাল’। এখানে ১০০ শয্যার আইসিইউ এবং ১১২টি এইচডিইউ স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া রোগীদের জন্য সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থাও রয়েছে।

 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টরা সূত্র জানায়, ডিএনসিসির মহাখালী কাঁচাবাজার মার্কেট আজ শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) সরেজমিনে দেখা হয়েছে। এখন এই ধোয়া-মোছার কাজ করছেন কর্মীরা।

 

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে, এই হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দিতে ৫০০ চিকিৎসক, ৭০০ নার্স, ৭০০ স্টাফ এবং ওষুধ, সরঞ্জামের ব্যবস্থা করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ইতিমধ্যে শতাধিক চিকিৎসক ও দুই শতাধিক নার্স কাজে যোগ দিয়েছেন। বাকিরা শনিবারের মধ্যে কাজে যোগ দেবেন। তবে হাসপাতালটি পরিচালনা করবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

 

ডিএনসিসি ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, ‘আগামীকাল শনিবার (১৭ এপ্রিল) হাসপাতালটি উদ্বোধনের কথা থাকলে কিছু কাজ এখনো বাকি রয়েছে। আশা করি আগামী রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে হাসপাতালটি উদ্বোধন করতে পারবো। তবে এই হাসপাতালে আপাতত শুধু করোনা চিকিৎসা দেয়া হবে। এখানে কোনো অপারেশন করা হবে না।


error: Content is protected !!