ঢাকা, বুধবার, ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বুধবার, ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পানছড়ি সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রবীন সাংবাদিক লাঞ্চিত

স্টাফ রিপোর্টার,খাগড়াছড়ি : পানছড়ি উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ও দৈনিক কালবেলা পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক লাঞ্চিত হয়েছেন।

জানা যায়, ২৭ এপ্রিল ২০২১ মঙ্গলবার সকালে পানছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদে গরীব দুঃস্থদের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা প্রদানের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সদর ইউপি চেয়ারম্যান নাজির হোসেন ও তার লালিত ক্যডার বাহিনীর হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন।

আক্রমনের শিকার সাংবাদিক এস চাকমা সত্যজিৎ জানান, সংবাদ সংগ্রহনের উদ্যেশ্যে পানছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ যাই। অনুষ্ঠান শুরুর দেরী হওয়াতে পরিষদ সংলগ্ন প্রেস ক্লাবের নির্ধারিত ভূমিতে অন্যান্য সহকর্মী দের সাথে আলাপ করছি। এমন সময় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারন সম্পাদক নাজির হোসেন তার ক্যাডার বাহীনি নিয়ে সেখানে হাজির হয়। আমাকে উদ্যেশ্য করে বলে চাকমা সাংবাদিক এখানে কি করে। এবং আমি নাকি ইউনিয়ন পরিষদের ভূমি দখল করতে গিয়েছি এমন মন্তব্য করে। বিষয়টি আমি ঠাট্টা / মসকারী মনে করে তাকে বলি চেয়ারম্যান আমরা যখন বানিয়েছি পরিষদ তো আমরাই দখল করবো। হঠাৎ সে আমার প্রতি উগ্র হয়ে সাম্প্রদায়িক ভাবে হেয় করে অকথ্য ভাষায় মন্তব্য করে। কথা কাটির এক পর্যায়ে তাট ক্যাডার বাহিনীর আজহার হোসেন, ফারুক,আক্তার সহ আমাকে কিল ঘুসি ও লাঠি সোটা দিয়ে মারতে থাকে। আমার সহকর্মীদের সহযোগীতায় সেখান থেকে উদ্ধার হই। থানায় অভিযোগ পত্রনিয়ে গেলে ওসি মো. দুলাল হোসেন মামলা নারেখে সমতোতার কথা বলে বিদায় করে দেয়।

 

এ বিষয়ে জানতে পানছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান নাজির হোসেনের মোবাইল ফোনে বারবার কল দিয়েও রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয় নাই।

উপজেলা আওয়ামীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন জানায়,সন্ত্রাসী সাম্প্রদায়িক উস্কানীদাতা ইউপি চেয়ারম্যান নাজির হোসেন সব সময় ক্যাডার বহর নিয়ে চলে। তার বহরে অধিকাংশই বিভিন্ন মামলার আসামী।


error: Content is protected !!