ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

খাগড়াছড়ির রামগড়ে নৌকার টিকেট পেতে মরিয়া আওয়ামীলীগ প্রার্থীরা

  ফ্যাক্ট ; পৌরসভা নির্বাচন

স্টাফ রিপোর্টার, খাগড়াছড়ি : : আগামী ২রা নভেম্বর দেশের ১০টি পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। 

২৯ সেপ্টেম্বর কমিশনের ৮৬তম সভা শেষে ১০টি পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন ইসি সচিব হুমায়ূন কবীর খন্দকার।

তফসিল অনুযায়ী আগামী ২ নভেম্বর ইভিএমের মাধ্যমে খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় পৌরসভার ভোটগ্রহণ করা হবে। প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলে শেষ তারিখ আগামী ৯ অক্টোবর। মনোনয়রপত্র বাছাই ১১ অক্টোবর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ অক্টোবর।

তফসিল ঘোষনার পর ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের টিকেট পেতে মরিয়া নির্বাচনে সম্ভাব্য দলীয় প্রার্থীরা। দলের মনোনয়ন পেতে স্থানীয় থেকে শুরু করে জেলা ও কেন্দ্র পর্যন্ত তদবীর চালিয়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। এদের মধ্যে রয়েছেন টানা ২বার নির্বাচিত বর্তমান পৌর মেয়র ও সাবেক উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহজাহান (কাজী রিপন), পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক ছাত্রনেতা রফিকুল আলম কামাল এবং পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরর নাম। এছাড়া বিএনপি থেকে দলটির কেন্দ্রীয় সিন্ধান্ত না থাকায় এখনো কোন প্রার্থী প্রকাশ্যে প্রচারণায় না আসলেও সাবেক কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন ও সাজ্জাদ হোসেন নির্বাচনে প্রার্থী হবার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

বর্তমান পৌর মেয়র মোহাম্মদ শাহজাহান কাজী রিপন বলেন, আমি পরপর দুবার রামগড় পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচন করে জয়ী হয়েছি। প্রথমবার নির্বাচিত হওয়ার পর পৌর এলাকায় সরকারের উন্নয়নমূলক কাজের গতি দেখে দ্বিতীয়বার নির্বাচনে জয়ী হতে বেগ পেতে হয়নি। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি আবারো আওয়ামীলীগ প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। তিনি আরো বলেন, পৌরবাসী সুযোগ দিলে আগামীতে এই পৌরসভায় একটি শিশু পার্ক, নিরাপদ পানি সরবরাহের লক্ষ্যে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান স্থাপন, পৌরসভা অভ্যন্তরে অডিটরিয়াম স্থাপন ও ঈদগাহ ময়দান প্রশস্তকরণের পরিকল্পনা রয়েছে। রামগড় স্থলবন্দর ব্যবসা-বাণিজ্য ও পর্যটনে এখানকার মানুষকে সম্পৃক্ত করে পৌরবাসীর জীবনধারাসহ অর্থনৈতিক ব্যাপক পরিবর্তনে কাজ করার পরিকল্পনার কথাও তিনি জানান।

বঙ্গন্ধুর সোনার বাংলা ও শেখ হাসিনার ডিজিলাল বাংলাদেশে রামগড় পৌরবাসীকে সম্পৃক্ত করার অঙ্গিকার নিয়ে রফিকুল আলম কামাল বলেন, আওয়ামীলীগের একজন পরিচ্চন্ন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে ছাত্রজীবন থেকে বরাবরই দলের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করেছি। প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় নির্দেশনা অনুযায়ী দলীয় নির্দেশনা অনুযায়ী নিজেকে যৌগ্য মনে করে নৌকার পক্ষে মেয়র প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন চাইবো। তিনি আরো বলেন, আমি নির্বাচিত হলে রামগড় পৌরসভাকে জনবান্ধব ডিজিটাল পৌরসভায় রুপান্তর করে শতভাগ জনসেবা প্রধানই হবে অন্যতম লক্ষ্য। রামগড় স্থলবন্দরকে পৌরবাসীর জন্যে অর্থনৈতিক জোনে উন্নতি করে প্রাচীন মহকুমা শহর রামগড়কে জেলায় রুপান্তর করার লক্ষ্যে কাজ করার প্রতিশ্রুতির কথাও তিনি জানান।

অন্যদিকে ডিজিটাল রামগড় বিনির্মান, শহরের উন্নয়ন, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূলের অঙ্গিকার ব্যক্ত করে সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের বলেন, তিনি নৌকার পক্ষে দলীয় মনোনয়ন পেলে আওয়ামীলীগ তথা নৌকার বিজয় নিশ্চিত হবে।

উল্লেখ্য, রামগড় পৌরসভা ২০০১ সালের ৪ জানুয়ারি ‘গ’ শ্রেণির পৌরসভা হিসেবে যাত্রা শুরু করে ২০০৫ সালের ১১ অক্টোবর ‘খ’ শ্রেণির পৌরসভায় উন্নীত হয়। এ পৌরসভায় এখনো শতভাগ নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত হয়নি। রয়েছে যানজট, ড্রেনেজ ব্যবস্থা, সড়কবাতি, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ নানা সংকট। ২০.৮৭ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এ পৌরসভায় মোট জনসংখ্যা প্রায় ৩৩ হাজার। মোট ভোটার ২২ হাজার ৪৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১১ হাজার ৫৬৩ ও মহিলা ১০ হাজার ৪৮৪ জন। ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ভোটার ছিলো ১৮ হাজার ২শত ৭৩ জন, যা ২০২১ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৭ শত ৭৪ জনে ।


error: Content is protected !!