ঢাকা, শুক্রবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, শুক্রবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Notice: Use of undefined constant php - assumed 'php' in /home/bhorerso/public_html/wp-content/themes/newsportal/lib/part/top-part.php on line 49

নির্বাচন থেকে সরে না দাঁড়ানোয় ভুট্টা ক্ষেত নষ্টের অভিযোগ

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার তিস্তার চরে সদস্য পদে নির্বাচন থেকে সড়ে না দাঁড়ানোর কারণে সদস্য প্রার্থীর ভুট্টা ক্ষেত নষ্ট করেছে প্রতিপক্ষ।

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বিচার চেয়ে কালীগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ক্ষতিগ্রস্ত সদস্য পদপ্রার্থী মনিরুল ইসলাম (৩৫)।

ক্ষতিগ্রস্ত সদস্য পদপ্রার্থী মনিরুল ইসলাম উপজেলার ভোটমারী ইউনিয়নের কালীকাপুর হাছাব আলীর ছেলে। তিনি ভোটমারী ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মরোগ প্রতীকের সদস্য পদপ্রার্থী।

অভিযোগে জানা গেছে, কৃষক মনিরুল ইসলাম আগামী ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ভোটমারী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪ নম্বর ওয়ার্ডে মোরগ প্রতীকে সদস্য পদে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি বাড়ির পাশে থাকা আব্দুর রহিমের জমি বর্গা নিয়ে ভুট্টার চাষাবাদ করেন। আসন্ন নির্বাচনে একই পদে টিউবওয়েল প্রতীকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আব্দুর রহিম। রহিম সদস্য পদপ্রার্থী হয়ে তার বর্গাচাষি প্রতিদ্বন্দ্বি মনিরুল ইসলামকে নির্বাচন থেকে সরে আসতে আহ্বান করেন। কিন্তু নিজের সিদ্ধান্তে অনড় মনিরুল নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যান।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আব্দুরের নির্দেশে তার প্রতিবেশী নুরল হকের ছেলে নমরুল হক গংরা বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় দলবল নিয়ে তার ৯২ শতাংশ জমির ভুট্টা ক্ষেতের মধ্যে অনুমান ৪০ শতাংশ ক্ষেতের গাছ কেটে ফেলে। এ সময় ওই জমিতে থাকা একটি সেচের শ্যালো মেশিনও ভেঙে দেয়। বিষয়টি জানতে পেয়ে এর প্রতিবাদ করলে নমরুল হক গংরা লাঠি নিয়ে তাড়া করলে পালিয়ে রক্ষা পান বর্গাচাষি ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মনিরুল। এরপর জমিতে এলে মেরে ফেলার হুমকিও দিয়ে যায় হামলাকারীরা।

এতে ভুট্টা ক্ষেতসহ তার ৭২ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে উল্লেখ করে বিচার চেয়ে নমরুলকে প্রধান এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আব্দুর রহিমসহ আট জনের নামে কালীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ করেছেন বর্গাচাষি মনিরুল।

বর্গাচাষি মনিরুল  বলেন, নির্বাচনের সঙ্গে ভুট্টা ক্ষেতের কী সম্পর্ক? নির্বাচনের প্রতিপক্ষ আমি। আমাকে মারতে এবং ভোটে পরাজিত করতে না পেয়ে আমার ভুট্টা ক্ষেত নষ্ট করা হয়েছে। এ বিষয়ে আমি থানায় অভিযোগ দিয়েছি।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত নমরুল ও আব্দুর রহিমকে ফোন করা হলে কল রিসিভ হয়নি। তবে আব্দুর রহিমের ভাতিজা একই মামলার আসামি রবিউল ইসলাম (৩৫) বলেন, এটা রাজনৈতিক প্রতিহিংসা। দু’পক্ষেরই ক্ষতি সাধন হয়েছে।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরজু মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


error: Content is protected !!