ঢাকা, বুধবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বুধবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ওমিক্রনের তাণ্ডব : এক সপ্তাহে ৪০৩% সংক্রমণ বেড়েছে দক্ষিণ আফ্রিকায়

দক্ষিণ আফ্রিকার বিজ্ঞানীরা ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট সম্পর্কে শঙ্কা প্রকাশ করার পর সেখানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও শনাক্ত এক সপ্তাহে ৪০৩ শতাংশ বেড়েছে। দেশটির শীর্ষস্থানীয় ভাইরোলজিস্ট তুলিও ডি অলিভেরা সংক্রমণের বৃদ্ধিকে ‘ভীতিকর’ বর্ণনা করে সবাইকে টিকা গ্রহণ ও মাস্ক ব্যবহারের আহ্বান জানিয়েছেন।

দুই সপ্তাহের ব্যবধানে ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট দক্ষিণ আফ্রিকাকে ‘কম সংক্রমণের সময়’ থেকে ‘দ্রুত বৃদ্ধিতে’ পরিণত করেছে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় এখন কভিড পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১০ শতাংশের বেশি। সরকারি তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার ৪৪৭৩টি কেস রেকর্ড করা হয়- আগের দিনের তুলনায় যা ৯২ শতাংশ বেশি। এদিকে দেশের বিজ্ঞানীরা সতর্ক করেন, ওমিক্রন ভেরিয়েন্টে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি বেশির ভাগ লোকই টিকা নেননি।

ডি অলিভেরা টুইটারে বলেন, বিস্ময়কর! দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনা পজিটিভ কেসের ভয়াবহ বৃদ্ধি ঘটেছে। অনুগ্রহ করে নিরাপদে থাকুন, মাস্ক ব্যবহার করুন এবং টিকা দেওয়ার জন্য যান। কারণ বিশ্বের ১০০০ জন বিজ্ঞানী বিষয়টি আরো ভালোভাবে বোঝার চেষ্টা করছেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর কমিউনিকেবল ডিজিজেস (এনআইসিডি) এর তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ৪২ হাজার ৬৬৪টি পরীক্ষা করা হয়েছে, এর মধ্যে নতুন শনাক্ত চার হাজার ৩৭৩ জন সংক্রমণের শিকার। এটি সোমবার রেকর্ড করা দুই হাজার ২৭৩টি নতুন শনাক্তের তুলনায় ৯২ শতাংশ বেশি। গত মঙ্গলবার ৮৬৪ জন শনাক্ত হয়। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে শনাক্ত বাড়ার শতাংশ ৪০৩।

যদিও পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের সংখ্যা এখনো তুলনামূলকভাবে কম, তবে তা দ্রুততার সঙ্গে বৃদ্ধি পাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ২১ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হলো ৮৯ হাজার ৮৪৩ জনের।
সূত্র : মেইল অনলাইন।


error: Content is protected !!