ঢাকা, সোমবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, সোমবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গবেষণায় ‌‘কাট-পেস্ট’ ভুলে যেতে হবে : বিএসএমএমইউ ভিসি

চিকিৎসকদের পাঁচগুণ রোগ কমানোর লক্ষ্য নিয়ে গবেষণা পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, গবেষণায় কাট, কপি অ্যান্ড পেস্ট ভুলে যেতে হবে। আজিজ সুপার মার্কেটের থিসিস দিয়ে গবেষণার পথ চিরতরে বন্ধ করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে নিউনেটোলজি বিভাগ কর্তৃক প্রথমবারের মতো বিভাগভিত্তিক গবেষণা দিবস -২০২৪ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন গবেষণা বান্ধব, গবেষণার জন্য একটি বিশেষ পরিবেশ তৈরি করেছে। আমি চাই গবেষণাগুলো যাতে জনসম্পৃক্ত হয়, সেদিকে জোর দিতে হবে। গবেষণায় কাট অ্যান্ড পেস্ট ভুলে যেতে হবে।

তিনি বলেন, আজিজ সুপার মার্কেটের থিসিস দিয়ে গবেষণার পথ চিরতরে বন্ধ করতে হবে। গবেষণায় আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। জন সম্পৃক্ত গবেষণায় প্রায়োগিক দিকটাও বের করতে হবে।

উপাচার্য বলেন, গবেষণার জন্য পাবলিকেশনও যেমন করতে হবে, তেমন ইমপ্লিকেশনও করতে হবে। গবেষণা করে জনগণের কী লাভ হবে সে বিষয় চিন্তা করে গবেষণা করতে হবে। কৃষিবিদরা এটি মাথায় রেখে পাঁচগুণ ফসল উৎপাদন বাড়িয়েছেন। আমরা এমনভাবে গবেষণা করে পাঁচগুণ রোগ কমানোর লক্ষ্য সকল চিকিৎসক ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করব। এবিষয় নিয়ে চিকিৎসকরা কাজ করলে কৃষিবিদের চেয়ে আমরা বেশ বড় গবেষক হব।

শারফুদ্দিন আহমেদ আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী আরও বেশি গবেষণা চাচ্ছেন। আমরা ইতোমধ্যেই ক্যাডাভেরিক ট্রান্সপ্ল্যান্ট ও কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট নিয়ে গবেষণা শুরু করেছি এবং তা চলমান রয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনসের (বিসিপিএস) সভাপতি সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ শহীদুল্লা, আইসিডিডিআর’বির একুশে পদকপ্রাপ্ত বিজ্ঞানী ড. ফেরদৌসী কাদরী উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ডা. রুহুল আমিন, অধ্যাপক ডা. লুৎফুল কবির, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, চিকিৎসক, রেসিডেন্ট, নার্স ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা, বিভিন্ন দাতা সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।


error: Content is protected !!