ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ওই দম্পতিকে বাবা-মা মানতে নারাজ ধানুশ, নিলেন আইনি ব্যবস্থা

দক্ষিণী সুপারস্টার ধানুশের আসল বাবা-মা নাকি তারাই! এমনটাই দাবি করেছেন ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের মাদুরাইয়ের এক দম্পতি। এমন পরিস্থিতিতে পাল্টা আইনি পথে হাঁটলেন ধানুশ।

দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম উজ্জ্বল তারকা ধানুশ। দিন কয়েক আগেই বিয়ে ভাঙা নিয়ে আলোচনায় ছিলেন। এবার তার নাম জড়াল আরও এক আইনি ঝামেলায়। গত বছরের শেষেই মাদ্রাজ হাইকোর্টে এক বৃদ্ধ দম্পতি ধানুশকে নিজেদের সন্তান বলে দাবি করে ৬৫ হাজার রুপি মাসিক খোরপোশ চেয়েছিলেন। এ মামলায় ধানুশকে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছে মাদ্রাজ হাইকোর্ট। এবার নড়চড়ে বসলেন অভিনেতাও।

 

 

ধানুশ ও তার বাবা কস্তুরী রাজা আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন মাদুরাইয়ের ওই দম্পতিকে। নোটিশে জানানো হয়েছে, ধানুশকে নিয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবি বন্ধ করুক তারা। তার বাবা কস্তুরী রাজ জানিয়েছেন, ধানুশ তার সন্তান। ওই বৃদ্ধ দম্পতির মামলার কারণে বদনামের মুখে পড়তে হচ্ছে পুরো পরিবারকে। এতে ধানুশের সম্মানহানি হচ্ছে।

ধানুশকে নিজেদের সন্তান বলে দাবি করে ভুল কাজ করেছেন তারা, এই বয়ান সম্পূর্ণ মিথ্যা, এমনটা জানিয়ে ওই দম্পতিকে এক প্রেস বিবৃতি দেওয়ার কথা জানিয়েছে ধানুশ ও তার বাবা। তেমনটা না ঘটলে ওই দম্পতির বিরুদ্ধে ১০ কোটি রুপি মানহানির মামলা দায়ের করবেন তারা। এমনটাই লেখা রয়েছে ওই আইনি নোটিশে।

ঠিক কী ঘটেছিল?

মাদুরাইয়ের অবসরপ্রাপ্ত সরকারি বাস কন্ডাকটর কাথিরেশন ও তার স্ত্রী মীনাক্ষী গত বছরের শেষে মাদ্রাজ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়ে জানায়, তার দক্ষিণী তারকা ধানুশের বায়োলজিক্যাল বাবা-মা। তাদের তিন সন্তানের একজন ধানুশ। অথচ সহায়-সম্বলহীন বাবা-মার দায়িত্ব নিতে অস্বীকার করছেন তিনি। চিকিৎসার জন্য মাসিক ৬৫ হাজার রুপি খরচ দাবি করেন ওই দম্পতি। সেই বিলের ব্যায়ভার বহন করতে হবে ধানুশকে, এমনটাই আবেদন জানায় ওই দম্পতি।