ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জার্মানি সোভিয়েতে যা করেছে, ইউক্রেনে তাই-ই করছে রাশিয়া: দাবি জেলেনস্কির

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গত ২১ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় ডোনেটস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে আলাদা স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেন। রুশ ভাষাভাষী অধ্যুষিত এই দুটি অঞ্চল একত্রে ‘ডোনবাস’ নামে পরিচিত। স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতির পর অঞ্চল দুটিকে বেসামরিকীকরণের লক্ষ্যে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। এখন পর্যন্ত ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি শহর দখলে নিয়েছে রুশ বাহিনী। তবে নিজেদের সাধ্যমতো প্রতিরোধীও গড়ে তোলার চেষ্টা করছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। এদিকে, আমেরিকা ও ইউরোপী ইউনিয়নের দেশগুলো এই অভিযানকে ‘পুতিনের ভূমি জবরদখল’ বলে আখ্যা দিয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির দাবি, ইউক্রেন যুদ্ধে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। বুধবার (২২ জুন) দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে একথা বলেন জেলেনস্কি। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেছেন, ১৯৪১ সালের ২২ জুন সোভিয়েত ইউনিয়নে আক্রমণ করার পর নাৎসি জার্মানি যা করেছিল, সেই একই কাজ গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভিযান শুরুর পর ইউক্রেনে করেছে রাশিয়া।
তিনি বলেন, ‘আজ ২২ জুন, যুদ্ধে নিহতদের শোক ও স্মরণ দিবস। বিংশ শতাব্দীর এই যুদ্ধ ইতিহাসে চিরকাল থাকবে এবং এর পুনরাবৃত্তি হবে না। কিন্তু এটির পুনরাবৃত্তি হয়েছে।’

জেলেনস্কির ভাষায়, ‘আজ এমন কথার অভাব নেই যে, নাৎসিরা (দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়) ২২ জুন সোভিয়েতে যা করেছিল, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভিযান শুরুর পর ইউক্রেনে সেটিই করেছে রাশিয়া…। সেসময় আক্রমণ শুরুর সকাল থেকে হানাদারের পরাজয় পর্যন্ত ১৪১৮ দিন অপেক্ষা করতে হয়েছে। আমাদের ভূখণ্ডকে মুক্ত করতে হবে এবং বিজয় অর্জন করতে হবে, তবে দ্রুত। অনেক দ্রুত।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটি আমাদের জাতীয় লক্ষ্য এবং আমাদের অবশ্যই এটি অর্জনের জন্য প্রতিদিন কাজ করতে হবে। শুধু রাষ্ট্রই নয়, যখন যেখানে সম্ভব প্রতিটি নাগরিককেও কাজ করতে হবে।’