ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যৌন নির্যাতনের অভিযোগে বিখ্যাত গায়কের ৩০ বছরের কারাদণ্ড

তাকে বলা হয় ‘আর অ্যান্ড বি’ ও ‘হিপ হপ’ গানের সম্রাট। সংগীতের এই দুটি ঘরানায় অসামান্য সাফল্য অর্জন করেছেন তিনি। বিশ্বজুড়ে অসংখ্য ভক্ত, শতাধিক পুরস্কার, সব দু’হাতে কুড়িয়েছেন। কিন্তু যৌন নির্যাতনের অভিযোগে সব ধুলিস্যাৎ হয়ে গেলো।

বলছি বিখ্যাত মার্কিন গায়ক, গীতিকার ও রেকর্ড প্রযোজক রবার্ট সিলভেস্টার কেলি। যিনি সবার কাছে আর কেলি নামেই পরিচিত। জনপ্রিয় এই শিল্পীকে ৩০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ব্রুকলিনের একটি আদালত।

 

 

কেলির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গত বুধবার (২৯ জুন) কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। সেই সঙ্গে তাকে ১ লাখ ডলার জরিমানা করা হয়েছে। কারাদণ্ডের শেষ পাঁচ বছর তিনি প্যারোলে মুক্তি পাবেন গায়ক।

আর কেলির বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ অনেক পুরোনো। নব্বই দশকেই তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে। এরপর ২০১৮ সালে ‘হ্যাশট্যাগ মিটু’ আন্দোলনের সময় তোপের মুখে পড়েন কেলি। তার বিরুদ্ধে অনেক নারী হয়রানির অভিযোগ তোলেন। অবশেষে সেসব অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

রায় দেওয়ার সময় কেলির নির্যাতনের শিকার অনেকই আদালতে উপস্থিত ছিলেন। গত বছরের সেপ্টেম্বরেই নিউইয়র্ক সিটি আদালতের বিচারক যৌন দাসত্বের উদ্দেশ্যে পাচার ও প্রতারণার অভিযোগে গায়ককে দোষী সাব্যস্ত করেন। তার বিরুদ্ধে আনা নয়টি অভিযোগের সব কটিই তখন প্রমাণিত হয়।

 

রায় ঘোষণার পর কেলি আদালতে কোনো বক্তব্য দেননি। তবে তার আইনজীবী জানিয়েছেন, তারা রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন।

উল্লেখ্য, ১৯৮৯ সালে ‘এমজিএম’ ব্যান্ডের সদস্য থাকাকালীন পরিচিতি পান কেলি। এরপর ব্যান্ডটি ভেঙে যায়, তিনি নিজের একক ক্যারিয়ার শুরু করেন। ১৯৯২ সালে ‘বর্ন ইনটু দ্য নাইনটিজ’ নামে প্রথম অ্যালবাম মুক্তি দেন কেলি। এ পর্যন্ত তিনি ১৪টি অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন। তার রেকর্ড বিক্রি হয়েছে ৭৫ মিলিয়নের বেশি। যার ফলে বিশ্বের সর্বোচ্চ বিক্রিত সংগীতশিল্পীদের একজন তিনি। গানের জন্য তিনটি গ্র্যামি, বারোটি বিলবোর্ড অ্যাওয়ার্ডস-সহ বহু পুরস্কার জিতেছেন কেলি।