ঢাকা, সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সেরা ডাটা সায়েন্টিস্ট ও ডাটা ইঞ্জিনিয়ারদের খুঁজে বের করল ডাটাথন

  • 1Words
  • Views

দেশের ডাটা সায়েন্টিস্ট ও ডাটা ইঞ্জিনিয়ারদের মেধার স্বীকৃতি প্রদানের বৃহত্তম প্ল্যাটফর্ম ডাটাথনের দ্বিতীয় সংস্করণের সমাপনী অনুষ্ঠান বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মোবাইল অপারেটর রবি এর আয়োজনে এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে – টিম ইন্সটিঙ্কট। দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে নাম্পি এবং তৃতীয় হয়েছে ভাইকিং রেইডার্স। প্রাইজ মানি হিসেবে চ্যাম্পিয়ন দল পেয়েছে দুই লাখ, দ্বিতীয় স্থান অধিকারী দল পেয়েছে দেড় লাখ এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী দল পেয়েছে ১ লাখ টাকা।

ডাটাথনের দ্বিতীয় সংস্করণে সেরা ডাটা ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে নুরেন শামস ও ইয়ামিনুর রহমান এবং সেরা ডাটা সায়েন্টিস্ট হিসেবে আবদুল বাসিত ও পার্থ ঘোষ প্রত্যেকে পেয়েছেন ১ লাখ টাকা পুরস্কার।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, এমপি এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার হাই কমিশনার হাজনাহ মো. হাশিম। সমাপনী অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের সিইও পিটার প্যান জুনফেং ও উপস্থিত ছিলেন।

ডাটাথনের দ্বিতীয় সংস্করণে ১১টি দেশ থেকে ২ হাজার ৮শ’র বেশি প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। প্রতিযোগিতার পর ২৫টি দলে ভাগ হয়ে ১শ’ জন প্রতিযোগী চূড়ান্ত পর্বে অংশ নেয়ার সুযোগ পান। এরপর দুই দিনব্যাপি হ্যাকাথনে প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হয় নির্ধারিত ২৫টি দল।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘তেল ও স্বর্ণের চেয়েও অনেক বেশি মূল্যবান হয়ে উঠতে পারে ডাটা, এজন্য প্রয়োজন দক্ষ ডাটা সায়েন্টিস্ট ও ডাটা ইঞ্জিনিয়ার যারা ডাটার এই মূল্যায়ন তেমন পর্যায়ে পৌঁছে দিতে পারবেন। স্মার্ট বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নে অন্যান্য অপারেটরদেরও রবির এই পদক্ষেপ অনুসরণ করার আহ্বান জানাই।’

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি বলেন, ‘আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থায় একটি নতুন ধারা গড়ে তুলতে হবে যাতে এমন মানবসম্পদ গড়ে উঠে যারা সমাজের ডিজিটাইজেশনে অবদান রাখতে পারবেন। ডাটাথন প্রতিযোগিতা এ ব্যাপারে দেশব্যাপী সাড়া ফেলেছে।’

সমাপনী অনুষ্ঠানে ‘ডাটা সায়েন্স ফর স্মার্ট বাংলাদেশ’ শীর্ষক একটি প্যানেল ডিসকাশনও অনুষ্ঠিত হয়েছে। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ডিস্টিংগুইশড প্রফেসর মোহাম্মদ কায়কোবাদ, বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের চিফ অ্যাডভাইজর প্রফেসর ড. সৈয়দ ফারহাত আনোয়ার, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের প্রেসিডেন্ট রাসেল টি. আহমেদ এবং রবি আজিয়াটা লিমিটেডের চিফ স্ট্র্যাটেজি অফিসার রুহুল আমিন প্যানেল ডিসকাশনে অংশ নেন।