ঢাকা, সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জাজিরায় যুবকদের স্বেচ্ছা শ্রমে সড়ক সংস্থার

  • 9Words
  • Views

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুরের জাজিরায় যুবকদের স্বেচ্ছা শ্রমে সড়ক সংস্থার করা হয়েছে। উপজেলার পালেরচর-পূর্বনাওডোবা ইউনিয়ন পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার সড়কের মেরামতের কাজ শুক্রবার ও শনিবার দিনব্যাপী বিনাশ্রমে স্বেচ্ছায় পালেরচর যুব কল্যাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে করা হয়। সড়কটির দ্রুত সংস্কারের কাজ করতে পারলে পদ্মা সেতুর সুবিধা বঞ্চিতরা, ওই দুটি ইউনিয়নসহ অন্তত পাঁচটি ইউনিয়নের অর্ধলক্ষাধিক মানুষ সুফল ভোগ করবে।

 

এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার পালেরচর ইউনিয়নের মধু মাদবরকান্দি থেকে পূর্বনাওডোবা ইউনিয়নের সিকদারকান্দি পর্যন্ত সড়কটি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) আওতাধীন। দীর্ঘদিন ধরে মেরামত না করায় রাস্তাটির বিভিন্ন অংশ ভেঙে যায় এবং বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। বৃষ্টি হলেই এক হাঁটু কাঁদা ও পানি জমে সড়কটিতে। ফলে সড়ক দিয়ে চলাচলকারী যানবাহনসহ যাত্রীদের পড়তে হয় চরম দুর্ভোগে। প্রতিনিয়তই ঘটে দুর্ঘটনা। এলাকাবাসী রাস্তার বেহাল অবস্থার ব্যাপারে এলজিইডি ও ইউনিয়ন পরিষদকে পাকা রাস্তা করার একাধিকবার দাবি জানিয়ে আসলেও তারা কোন কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। তাই এলাকার যুবকরা মিলে টাকা তুলে স্বেচ্ছা শ্রমের ভিত্তিতে জরুরি মেরামত কাজ শুরু করে। শক্রবার-শনিবার। ও রবিবার এ রাস্তা মেরামতের কাজ করা হয়েছে। দ্রুত সড়কটির সংস্কার করতে পারলে পদ্মা সেতুর সুবিধা বঞ্চিতরা, ওই দুটি ইউনিয়নসহ অন্তত পাঁচটি ইউনিয়নের অর্ধলক্ষাধিক মানুষ সুফল ভোগ করবে।

 

রাস্তা মেরামতে অংশ নেন পালেরচর যুব কল্যাণ ফাউন্ডেশনের সভাপতি মো. বেলায়েত হোসেন মাদবর, সহসভাপতি আনোয়ার হোসেন বেপারী, সাধারণ সম্পাদক সালাম তালুকদার, উপদেষ্টা ডা. কাউসার আহম্মেদ, মনজুরুল ইসলাম মাদবর, বাচ্চু বয়াতী, সোনা মিয়া মাষ্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন মাদবর, দফতর সম্পাদক রনি বেপারী, যুগ্ম সম্পাদক এরশাদ মাদবর ও ফয়জল মাদবরসহ এলাকার যুবকরা।

 

মো. বেলায়েত হোসেন মাদবর, সাধারণ সম্পাদক সালাম তালুকদার বলেন,পালেরচর-পূর্বনাওডোবা সড়কটি যাতায়াতের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পাঁচটি ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করে। তাছাড়া রাস্তার মধ্যে বড় বড় গর্ত থাকায় ইজিবাইক, ভ্যান, রিকশাসহ সকল ধরনের যানবাহন চলাচলে খুবই সমস্যা হয়। মাঝে মধ্যে ঘটে দুর্ঘটনা। এলজিইডি ও ইউনিয়ন পরিষদে একাধিকবার রাস্তা মেরামতের জন্য জানালেও তারা কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। তাই আমরা এলাকার যুবকরা মিলে স্বেচ্ছায় রাস্তা মেরামতের কাজ করছি। সরকারিভাবে পাকা সড়ক করা হোক।

 

এছাড়া সোনামিয়া মাষ্টার বলেন, রাস্তাটি অনেকদিন ধরেই ভেঙে গেছে। রাস্তার মধ্যে বড় গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহনসহ মানুষের চলাচলে মারাত্মক সমস্যা সৃষ্টি হয়। চেয়ারম্যান-মেম্বাররা প্রতিশ্রুতি দিলেও রাস্তাটা মেরামত করছেন না। রাস্তা মেরামতের জন্য এলাকার যুবক মিলে টাকা দিয়ে ইট, বালু ক্রয় করে নিজেরা স্বেচ্ছায় রাস্তা মেরামত করছি।

 

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী (এলজিইডি) মো. শাহজাহান ফরাজী বলেন, সড়কটির ব্যাপারে আমি জানলাম। উপজেলা প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা বলে কি ব্যবস্থা নেয়া যায় দেখছি।