ঢাকা, সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ধরা পড়ল গাঢ় নীল রঙের বিরল গলদা চিংড়ি

  • 1Words
  • Views

সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে বিরল প্রজাতির একটি চিংড়ি পেয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক জেলে। আদ্যোপান্ত গাঢ় নীল রঙের এই অত্যন্ত বিরল। আটলান্টিক মহাসাগরে খোঁজ মিলেছে এই চিংড়ির।

 

আমেরিকার পূর্ব উপকূলের মাউন্ট ডেসার্ট আইল্যান্ডের বাসিন্দা ব্লেক হ্যাস। আটলান্টিক মহাসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ২৭ বছরের এই যুবকই নীল চিংড়িটি খুঁজে পেয়েছেন। এই প্রজাতি এতটাই বিরল যে, ২০ লাখ চিংড়ির মধ্যে একটির রং নীল হয়। তা ধরতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান বলে দাবি করেছেন তিনি।

টিকটকে চিংড়িটির ছবি পোস্ট করেছেন ব্লেক। ছবিতে দেখা যায়, হাতে গ্লাভস পরে সেটি ক্যামেরার খুব কাছে ধরে আছেন তিনি। সঙ্গে লিখেছেন, ‘নীল চিংড়ি! ২০ লাখে একটার রং এমন হয়।’

ব্লেক বলেছেন, ‘এত উজ্জ্বল নীল রঙের সুন্দর চিংড়ি আমি আগে কখনও দেখিনি। আমরা অনেক চিংড়ি ধরি। কখনও কখনও কিছু চিংড়ির লেজ বা শুঁড়ের দিকে হালকা নীল রঙ দেখা যায়। কিন্তু পুরো দেহ নীল রঙের হয় না। আমি এমন চিংড়ি আগে দেখিনি। আমার সঙ্গে আরও যারা মাছ ধরেন, তারাও কখনও এমন চিংড়ি দেখেননি। আশা করি, আবার কখনও এমন লবস্টার ধরতে পারব।’

সাধারণত বেশিরভাগ গলদা চিংড়ি কর্দমাক্ত বাদামি অথবা লাল রঙের হয়। ইউনিভার্সিটি অব মেইনির লবস্টার ইনস্টিটিউটের মতে, নীল গলদা চিংড়ি অত্যন্ত বিরল। এ ধরনের চিংড়ি ২০ লাখের মধ্যে একটি খুঁজে পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

জিনগত অস্বাভাবিকতার কারণে গলদা চিংড়ির রঙ নীল হয়। আর অন্যান্য চিংড়ির তুলনায় নীল গলদার শরীরে বিশেষ ধরনের প্রোটিন বেশি উৎপাদন হয়। চলতি বছরের জুলাইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পোর্টল্যান্ডের উপকূলে ধরা পড়েছিল একই ধরনের নীল রঙের একটি চিংড়ি।