ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

থানচিতে বিনা মূল্যে সবজি বীজ সার গৃহপালনে উপকরন বিতরন

  • 6Words
  • Views

থানচি ,বান্দরবান প্রতিনিধি :
বাড়ীর আঙিনায় এক ইঞ্চি ও জমি খালী রাখা যাবে না প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়নের বান্দরবানে থানচি উপজেলা অনাবাদি পতিত জমি ও বসত বাড়ির আঙ্গিনায় পারিবারিক পুষ্টি বাগান স্থাপন ও পরিবারের আর্থিক স্বচ্ছলতা ফিরে আনতে অস্বচ্ছল, হত দরিদ্র, সাধারন কৃষক চলতি মৌসুমে প্রান্তিক জন গোষ্ঠী ও কৃষকদের মাঝে ৫৯ জনকে ৮০ টি মুরগি, ১৯ টি হাঁস এবং চার জাতের শীত কালীন সবজি ( বরবটি, শীম, ঢেঁড়স, বাটি শাক) ২৩.৫ কেজি বীজ বিনা মূল্যে বিতরণ করা হয়। তাছাড়া ক্ষুদ্র খামার ও পরিবারেরর নতুন আয়ের উৎস তৈরির লক্ষ্যে ১৭ জন কৃষকদের তাঁদের চাহিদা অনুযায়ী ০৪ টি মুরগি, ০৮ টি হাঁস, ১৪ টি ছাগল এবং ০২ টি শূকর গৃহপালিত পশু বিতরণ করা হয়।

 

থানচি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের সহযোগীতা ও তত্ত্বাবধানের স্বেচ্ছা সেবী সংগঠন কারিতাস বাংলাদেশ , সিপিপি পিএইপি-২ প্রকল্প আওতায় থানচি উপজেলা ৮ টি ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠিদের পাড়ায় পাড়ায় গিয়ে এ সব সামগ্রি কৃষকদের হাতে তুলে দিয়েছেন।

 

গত ১৭ হতে ২৪ নভেম্বর ২০২২ পর্যন্ত ৮ দিনে কৃষকদের বাড়ীতে গিয়ে পৌছে দিয়েছেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপসহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষন কর্মকর্তা বিশ্বজিদ দাশ গুপ্ত, কারিতাস, সিপিপি পিএইপি-২ প্রকল্পের মাঠ কর্মকর্তা হাঁদি চন্দ্র ত্রিপুরা সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উদ্ভিদ সংরক্ষন উপ সহকারী কর্মকর্তা বিশ্বজিত দাশ গুপ্ত বলেন,কারিতাস একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এবং নিরলস ভাবে গরীব,দুঃখী মানুষের জন্যে কাজ করে যাচ্ছে এবং সহায়তা প্রদান করছে।কৃষকদের তিনি সনাতন/ গতানুগতিক উপায়ে পালন না করে আধুনিক পদ্ধতিতে পশুপাখি পালনের পরামর্শ রাখেন।