ঢাকা, রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পৌনে ২ ঘণ্টা পর ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

কোটাবিরোধী আন্দোলনে পৌনে দুই ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকেল ৩টায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) শিক্ষার্থীদের অবরোধ থেকে জামালপুর এক্সপ্রেস ট্রেন মুক্ত হলে এই রুটে যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়।

এর আগে এদিন দুপুর সোয়া ১টার দিকে বাকৃবি জব্বারের মোড় সংলগ্ন রেললাইনে এই ট্রেন অবরোধ করেন কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীরা। আন্দোলনকারীরা ক‍্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে রেললাইনে অবস্থান নেন। এতে জামালপুর এক্সপ্রেস ট্রেনে আটকা পড়া যাত্রীদের মধ্যে দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনার খবরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মো. আজাহারুল ইসলাম আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের কোনো ধরনের সহিংসতায় না জড়ানোর আহ্বান জানান।

তিনি  বলেন, শিক্ষার্থীরা জাতীয় ইস্যু নিয়ে আন্দোলন করছে। এখানে আমাদের কিছু করার নেই। তবে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনের অনুরোধ জানিয়েছি।ময়মনসিংহ রেলওয়ে স্টেশনের সুপারিনটেনডেন্ট মো. নাজমুল হক খান জানান, শিক্ষার্থীরা জামালপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে আটকে রাখে। পরে বিকেল ৩টা থেকে এই রেলপথে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক শিক্ষার্থী বলেন, সরকারি চাকরিতে ২০১৮ সালের পরিপত্র বাতিল করে কোটা পদ্ধতি পুনর্বহাল সংক্রান্ত হাইকোর্টের রায়ের প্রতিবাদ জানিয়ে এবং সকল চাকরিতে বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে মেধাভিত্তিক নিয়োগের দাবিতে এই আন্দোলন শুরু হয়েছে। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও গতকাল ৩ জুলাই দুপুরে একই স্থানে মোহনগঞ্জগামী মহুয়া কমিউটার ট্রেন আটকে বিক্ষোভ মিছিল করেন শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় প্রায় ঘণ্টাখানেক ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথ বন্ধ ছিল।


error: Content is protected !!