ঢাকা, রবিবার, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, রবিবার, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তরুণদের হাতেই গড়ে উঠবে আগামীর স্মার্ট বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, তরুণদের হাতেই গড়ে উঠবে আগামীর স্মার্ট বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত। তরুণরাই দেশের ভবিষ্যৎ। প্রধানমন্ত্রী আগামীর তরুণদের জন্য সমান সুযোগ ও সম্ভাবনা তৈরিতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি উন্নত, আধুনিক ও স্মার্ট বাংলাদেশ হবে। সেই বাংলাদেশের নেতৃত্বে থাকবে আজকের তরুণরাই।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সিআরআই ও ইয়াং বাংলা আয়োজিত এনার্জি অ্যান্ড ফাইনান্স শীর্ষক লেটস টকের প্যানেলিস্ট হিসেবে বক্তব্য দেওয়ার সময় এসব কথা বলেন তিনি।

লেটস টকে অংশগ্রহণকারী তরুণরা প্রতিমন্ত্রীকে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন এবং বাংলাদেশের ভবিষ্যতের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত নিয়ে তাদের মতামত তুলে ধরেন। প্রতিমন্ত্রী দীর্ঘক্ষণ তরুণদের সকল প্রশ্নের উত্তর দেন এবং তাদের মতামত গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা হবে বলে আশ্বাস দেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গ্যাস ও বিদ্যুৎ সঞ্চালন, স্মার্ট গ্রিড নির্মাণ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে আধুনিক প্রযুক্তি স্থাপন, নবায়নযোগ্য জ্বালানি, অফশোর ও অনশোর বায়ুবিদ্যুৎ, লিথিয়াম ব্যাটারি কারখানা স্থাপন, সাইবার সিকিউরিটি, তেল ও গ্যাস অনুসন্ধান প্রভৃতি খাতে  প্রচুর বিনিয়োগ হবে সামনের দিনগুলোতে।

তিনি বলেন, চার্জিং স্টেশন বা সার্ভিস নীতিমালা করা হয়েছে। ইলেকট্রিক ভেহিক্যাল খাতেও বিনিয়োগ ও উদ্ভাবনী চিন্তা তরুণদের অংশগ্রহণ বাড়াবে আগামীতে। নিরবিচ্ছিন্ন ও সাশ্রয়ী মূল্যে বিদ্যুৎ সরবরাহের চ্যালেঞ্জ নিয়ে সরকার কাজ করছে। এছাড়া আগামী ১৫ বছরে বিদ্যুৎ খাতে প্রায় ৭৫ বিলিয়ন ডলার প্রয়োজন।

সাহস মোস্তাফিজের সঞ্চালনায় প্যানেলিস্ট হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন- বুয়েটের অধ্যাপক সেলিয়া শাহনাজ ও গ্রিন ভয়েজের ডিভিশনাল কো-অর্ডিনেটর ইশরাত জাহান।


error: Content is protected !!