ঢাকা, সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

লোগাং ইউপি-তে কোভিট ১৯ এর ভ্যাকসিন প্রদান

এম জামান রাজ ,স্টাফ রিপোর্টার, খাগড়াছড়ি :    খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার লোগাং ইউনিয়নের হলরুমে প্রথম বারের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স।   ১ আগষ্ট ২০২১ রবিবার সকাল ৯ টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত এই কার্যক্রম চলে।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের মেডিক্যাল টেকনোলজিষ্ট ( ইপিআই) ললেন্দ্র লাল ত্রিপুরা জানান, লোগাং ইউনিয়ন পরিষদের হলরুমে ১৯২ জনকে সিনো ফার্মের (চীন) কোভিট ১৯ প্রতিরোধ টিকা প্রদান করা হয়। এছাড়াও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও প্রতিদিনের ন্যায় ২৭৬ জন সহ মোট ৪৬৮ জনকে ভ্যাকসিন (টিকা) দেওয়া হয়েছে। ভ্যাকসিন (টিকা) প্রদান শুরু থেকে ১ আগষ্ট ২০২১ তারিখেই একদিনে সবচেয়ে বেশী লোকের মাঝে টিকা দেওয়া হয়েছে।

আয়োজনকারী পানছড়ি প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান অলি,সাবেক সাধারন সম্পাদক শাহজাহান কবির সাজু জানান,দুর্গম অঞ্চলের লোকজন করোনা ভ্যাকসিন সম্পর্কে ধারনা নাই। সরকারের মহতি উদ্যোগ প্রত্যেক নাগরিকের পাওয়ার অধিকার নিশ্চিত করতে আমরা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে কাজ করি। যারা উপজেলা সদর থেকে দূরে দুর্গম এলাকায় বসবাস করেন, তাদের জন্যই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের আহবানে সাড়া দেওয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কর্মকর্তা ডাক্তার অনুতোষ চাকমা,সহ স্বাস্থ্য পরিদর্শক বিমল শান্তি চাকমা,সিনিয়র স্টাফ সেবিকা লিপি চাকমা, স্বাস্থ্য সহকারী মঙ্গল জ্যোতি চাকমা সহ তাদের সাথে আসা সকল সহযোগীদের কৃতজ্ঞতার সহিত ধন্যবাদ জানাই।

লোগাং ইউপি চেয়ারম্যান ( ভারপ্রাপ্ত) নয়ন রঞ্জন চাকমা পানছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও উপজেলা প্রেসক্লাবের মহতি উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে ,সরকার ও প্রশাসনের সহযোগিতায় দুর্গম অঞ্চলের পাড়ায় পাড়ায় এভাবে সেবা পৌছানোর আহবান জানান।

 

লোগাং ইউনিয়নের শিক্ষক মিলন সাহা, স্বেচ্ছাসেবক ইমরান খান করোনা ভ্যাকসিন গ্রহনের জন্য রেজিষ্ট্রেশন কাজে প্রেস ক্লাবকে সহযোগিতা করেছেন। তারা বলেন, করোনা থেকে বাঁচতে চাইলে টীকার কোন বিকল্প নেই। সরকার এ বছরের মধ্যে দেশের বৃহত্তম( ৮০%) জনগোষ্ঠীকে ভ্যাকসিন দিয়ে সুরক্ষা দিতে চায়। টীকা গ্রহনে যোগ্য সবাই রেজিষ্ট্রেশন করুন, টীকা নিন,করোনা থেকে বাঁচুন।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কর্মকর্তা ডাক্তার অনুতোষ চাকমা বলেন, টীকার কোন বিকল্প নেই। সরকার এ বছরের মধ্যে দেশের বৃহত্তম জনগোষ্ঠীকে ভ্যাকসিন দিয়ে সুরক্ষা দিতে চায়। টীকা গ্রহনে যোগ্য সবাই রেজিষ্ট্রেশন করুন, টীকা নিন,করোনা থেকে বাঁচুন। আজ পানছড়ি প্রেসক্লাবের উদ্যোগ সত্যিই প্রসংশনীয়। খুব সফল উদ্যোগ নিয়েছেন, স্বাস্থ্য সেবায় সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্য উনাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।


error: Content is protected !!