ঢাকা, রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শৈশবের বন্ধুর মুখোমুখি হবেন তো মেসি?

বার্সেলোনার ফুটবলার গড়ার কারখানা ‘লা মাসিয়া।’ এই লা মাসিয়া থেকেই উঠে এসেছে ফুটবল বিশ্বের নামীদামী তারকারা। তবে বার্সেলোনার এই একাডেমির ২০০৮ সালের ব্যাচের কথা নিঃসন্দেহে ফুটবল বিশ্বে আলাদা এক জায়গা করে নিবে। ২০০৮ সালের লা মাসিয়া গ্র্যাজুয়েটদের মাঝে ছিলেন লিওনেল মেসি, জেরার্ড পিকে, সেস্ক ফ্যাব্রিগাসের মত তারকারা। এদের প্রত্যেকেই ফুটবল বিশ্বে কিংবদন্তি। আর মেসি তো ইতিহাসেরই অন্যতম সেরা।

তবে বিষ্ময়কর হলেও সত্য, মেসিই এই ব্যাচের সেরা খেলোয়াড় ছিলেন না। বার্সেলোনার অনেকেই বিশ্বাস করেন, লা মাসিয়ার ২০০৮ গ্র্যাজুয়েটদের মাঝে সেরা খেলোয়াড় ছিলেন স্প্যানিশ ভিক্টর ভাস্কেজ। তবে পেপ গার্দিওলার অধীনে মেসি যখন উড়ন্ত ফর্মে, ভিক্টর তখন আক্রান্ত হন হাঁটুর ইনজুরিতে। এই ইনজুরির কারণে ক্যারিয়ারই শেষ হতে পারতো তার। প্রতিভা থাকার পরেও তাই আর ভিক্টরকে দেখা যায়নি ফুটবলের বড় মঞ্চে।

ভাগ্যের ফেরে শৈশবের সেই বন্ধুর সঙ্গে দেখা হতে যাচ্ছে মেসির। ইন্টার মায়ামিতে বর্তমানে দিন পার করছেন লিও মেসি। আর সেই একই লিগে টরেন্টো এফসির জার্সিতে খেলছেন ভিক্টর ভাস্কেজ। ইন্টার মায়ামির পরের ম্যাচ টরেন্টোর সঙ্গেই। সেই সুবাদে মেসি এবার মুখোমুখি হচ্ছেন তার শৈশবের বন্ধুর সঙ্গে।

সাবেক সতীর্থের সঙ্গে দেখা করতে মুখিয়ে আছেন ভাস্কেজ নিজেও। তার প্রত্যাশা বৃহস্পতিবারের ম্যাচে মাঠে নামবেন মেসি, ‘আমি আশা করি সে (মেসি) বুধবার (স্থানীয় সময় অনুযায়ী) প্রস্তুত থাকবে। কারণ সে তার সমর্থকদের সামনে খেলতে চায়। আর তারাও নিশ্চয় তিন পয়েন্ট হারাতে চাইবে না।’

বন্ধু মেসিকে আটকানোর বিশেষ পরিকল্পনা নেই বলেও জানিয়েছেন ভিক্টর। পুরো দল নিয়েই মায়ামির মোকাবেলা করতে চান ৩৬ বছর বয়েসী এই প্লে-মেকার।


error: Content is protected !!