ঢাকা, বুধবার, ২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, বুধবার, ২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিশ্বকাপে বাঁহাতি ঘূর্ণিতে নজর কাড়ছেন লঙ্কান অধিনায়ক

চলতি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত হয়েছে দশটি ম্যাচ। যেখানে সেঞ্চুরি হয়েছে চারটি আর ফাইফার তথা ম্যাচে পাঁচ উইকেটের দেখা মিলেছে পাঁচবার। এদের মধ্যে বাঁহাতি স্পিনে আলাদা করে নজর কেড়েছেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দুনিথ ওয়েলালাগে।

অবশ্য শুধু স্পিন নয়, অলরাউন্ড ভূমিকায় দলকে দুই জয় এনে দিয়েছেন লঙ্কান যুবাদের অধিনায়ক। তার সবশেষ শিকার অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯ দল। সোমবার গ্রুপপর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। যার মূল কারিগর দুনিথ।

সেইন্ট কিটসের বাসেত্তেরে স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করা অস্ট্রেলিয়া দল মূলত দুনিথের ঘূর্ণিতে পড়েই মাত্র ১৭৫ রানে অলআউট হয়ে যায়। লঙ্কান অধিনায়ক ১০ ওভারে এক মেইডেনসহ মাত্র ২৮ রান খরচায় নেন ৫টি উইকেট।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করা ওপেনার ক্যাম্পবেল কেলাওয়েকে ফিরিয়ে ধ্বংসযজ্ঞের শুরুটা করেন দুনিথ। তার স্পিন বিষে নীল হয়ে মিডলঅর্ডারে মাত্র ৫ রানের ব্যবধানে তিন উইকেট হারায় অসিরা। পরে আরও দুই উইকেট নেন দুনিথ।

প্রথম ইনিংসে বল হাতে জাদু দেখানোর পর দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতেও দলকে উদ্ধার করেন লঙ্কান অধিনায়ক। একপর্যায়ে মাত্র ৪৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। সেখান থেকে ৫২ রানের ইনিংস খেলে দলকে জয়ের পথে নিয়ে যান অধিনায়ক।

এছাড়া উইকেটরক্ষক ব্যাটার আঞ্জালা বান্দারা ৩৩ ও রানুদা সোমারত্নে করেন ৩২ রান। যার সুবাদে ৩৭ ওভারেই ম্যাচ জিতে যায় শ্রীলঙ্কা। পরপর দুই ম্যাচ জিতে কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রাখলো তারা।

অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর আগে প্রথম ম্যাচেও ৫ উইকেট নিয়েছিলেন দুনিথ। স্কটল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে ৪৭ রানে ৫ উইকেট নিয়ে সেদিনও ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।