ঢাকা, সোমবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, সোমবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পাংশায় নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি : রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলা প্রশাসন, সমবায় বিভাগ ও সমবায়ীদের যৌথ উদ্যোগে শনিবার ৭ নভেম্বর “বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস-২০২০ পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা ও সমবায় পতাকা উত্তোলন, র‌্যালী ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

শনিবার সকাল ১১টায় পাংশা উপজেলা পরিষদ চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা ও সমবায় পতাকা উত্তোলন করেন পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ, পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) বিপুল চন্দ্র দাস, পাংশা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মাদ সাহাদাত হোসেন, পাংশা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগম, পাংশা ইউসিসিএ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবিএম লিয়াকত আলী খান ও পাংশা উপজেলা সমবায় অফিসার এস.এম কামরুন্নাহার। এরপর র‌্যালী ও সবশেষে পাংশা উপজেলা পরিষদের হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পাংশা ইউসিসিএ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবিএম লিয়াকত আলী খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল চন্দ্র দাস, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বিশ্বাস ও রোকেয়া বেগম, সমবায়ী জয়নাল আবেদীন প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পাংশা উপজেলা সমবায় অফিসার এস.এম কামরুন্নাহার। উপস্থাপনা করেন পাংশা উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার শ্যামল কুমার বিশ্বাস।
আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্যে উপজেলা সমবায় অফিসার এস.এম কামরুন্নাহার বলেন, দেশের প্রেক্ষাপটে পাংশা একটি সম্ভাবনাময় উপজেলা। বর্তমান সরকারের সফল উদ্যোগে ভ‚মিহীন গৃহহারা মানুষের স্থায়ী নিবাসের জন্য সৃষ্ট আশ্রয়ন প্রকল্প। পাংশা উপজেলায় সমবায় অধিদপ্তরের অধীন আশ্রয়ন প্রকল্পের ১টি সমিতি আছে।

উপকারভোগী পরিবারের সংখ্যা ২৬০। তিনি বলেন, দুগ্ধ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে সমবায় অধিদপ্তরের মাধ্যমে বিশেষ দুগ্ধ প্রকল্প জুন/২০১৭ শেষ হয়ে আবর্তক তহবিল আকারে দুগ্ধ খামারিদের ঋণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এছাড়াও পাংশা উপজেলায় মিল্কভিটা কর্তৃক আরও ৩টি মিল্কভিটা সমবায় সমিতি গঠন করা হয়েছে। যার মাধ্যমে ইতিমধ্যে বাহাদুরপুর ইউনিয়নে দুগ্ধ শীতলীকরণ কারখানা স্থাপন করা হয়েছে। সমবায়ীরা তার সুবিধা ভোগ করছে। সরকার কর্তৃক পরিচালিত এবং বার্ড কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন কর্মসূচি প্রকল্পে ৬০টি সমবায় সমিতি গঠনের মাধ্যমে গ্রাম ভিত্তিক উন্নয়নের কাজ সফলতার সাথে এগিয়ে চলছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

অতিথিবৃন্দ ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবসের “বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন” প্রতিপাদ্যকে ধারন করে সমবায় আন্দোলনের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতির পিতার স্বপ্ন- দারিদ্রমুক্ত, সুখি ও সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ে তোলার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে পাংশা সিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আওয়াবুল্লাহ ইব্রাহিম, পাংশা উপজেলা দলিল লেখক ও স্ট্যাম্প ভেন্ডার সমিতির সভাপতি সুব্রত কুমার দাস সাগর, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, সমবায় সমিতির নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন।


error: Content is protected !!