ঢাকা, রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ঢাকা, রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কোরবানী ঈদ আসলেই জাল নোট চক্রকারীরা বেপরোয়া হয়ে উঠে; জেলা প্রশাসক মো. সহিদুজ্জামান

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক, খাগড়াছড়ি :
খাগড়াছড়িতে বাংলাদেশ ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংক পিএলসি’র উদ্যোগে জাল নোট প্রচলন প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধিমূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

৬ জুন ২০২৪, বৃহস্পতিবার সকালে খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা অডিটোরিয়ামে জেলা প্রশাসক মো. সহিদুজ্জামান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রাম অঞ্চলে নির্বাহী পরিচালক আরিফ হোসেন খান উপস্থিত ছিলেন।

কমর্শালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সোনালী ব্যাংক খাগড়াছড়ি শাখা’র সহকারি মহা ব্যবস্থাপক সমর কান্তি ত্রিপুরা।

জেলা প্রশাসক মো. সহিদুজ্জামান বলেন, কোরবানী ঈদকে সামনে রেখে একটি চক্র জাল টাকার নোটের লেনদেনের চেষ্টা চালায়। কোরবানী ঈদ আসলেই জাল নোট চক্রকারীরা বেপরোয়া হয়ে উঠে। জাল নোট না চেনার কারণে অনেকেই বিপদে পড়ে। পথে বসতে হয়। আমাদেরকে জাল নোট কিভাবে শনাক্ত করতে হবে ? সেটা অবশ্যই জানতে হবে। আমাদেরকে আরও বেশি সচেতন ও সতর্ক থাকতে হবে। জাল টাকা জীবনের জন্য অপ্রয়োজনীয় জটিলতা।

 

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মুক্তা ধর,সোনালী ব্যাংক পিএলসি প্রিন্সিপাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মো. সাইফুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাঈমা ইসলাম,কৃষি ব্যাংক খাগড়াছড়ি শাখা’র ব্যবস্থাপক দেবাশীষ ত্রিপুরা, পূবালী ব্যাংক পিএলসি খাগড়াছড়ি জেলা শাখা’র সহকারী মহাব্যবস্থাপক অভিজিত ভট্টাচার্য্য। এছাড়াও কর্মশালায় বিভিন্ন ব্যাংকের কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় জাল টাকা শনাক্ত করনে প্রসাশনিক সহযোগিতা ও বাজার মনিটরিং করা সহ জাল নোট থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানান বক্তারা।


error: Content is protected !!